ঢাকা, সোমবার, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১২ জিলহজ ১৪৪১

শিক্ষা

শিক্ষার্থীরা হল ছেড়েছেন, রুয়েট ফাঁকা

রাবি প্রতিনিধি | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০৩-১৭ ০২:৪৫:৩২ পিএম

রাবি : রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) ছাত্রলীগের হামলায় এক শিক্ষার্থীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করায় শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাস ছেড়েছেন।

আবাসিক ছাত্ররা শুক্রবার বিকেল ৫টা এবং ছাত্রীরা শনিবার দুপুর ১২টার মধ্যে হল ত্যাগ করেছেন।


 
বর্তমানে ক্যাম্পাস ফাঁকা হয়ে গেছে। তবে নিরাপত্তার খাতিরে ক্যাম্পাসে পর্যাপ্ত পুলিশ ও আনসার মোতায়েন রাখা হয়েছে।  

শুত্রুবার দুপুরে রুয়েট উপাচার্য প্রফেসর ড. সিরাজুল করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক জরুরি সভায় ক্যাম্পাসে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় রুয়েটের সব শিক্ষা কার্যক্রম আগামী ২৯ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

তবে প্রশাসনিক ও জরুরি বিভাগের কার্যক্রম যথারীতি চলবে বলে বাংলানিউজকে জানান রুয়েটের জনসংযোগ কর্মকর্তা গোলাম মুর্তজা।
 
তিনি আরো জানান, আগামী ৩১ মার্চ পুনরায় হলগুলো শিক্ষার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হবে।
 
রাজশাহীর মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর হোসেন বাংলানিউজকে জানান, ছাত্রলীগ কর্মীদের হাতে ছাত্র হত্যার ঘটনায় ১৪ জনের নাম উল্লেখ করে মতিহার থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।
 
উল্লেখ্য, গত সোমবার রুয়েট ক্যাফেটেরিয়ায় সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র আবদুল আজিজ খান সজিব ও একই বিভাগের রনি নাস্তা করতে যান। এ সময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সেলিম হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মুন্না, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পলাশ, রাজিব, জয়সহ ছয়/সাতজনের একটি দল তাদের লোহার রড, লাঠি ও হাতুড়ি দিয়ে বেধরক পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। এ ঘটনার তিনদিন পর বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে আবদুল আজিজ খান সজিব ঢাকার সাভারের একটি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

বাংলাদেশ সময় : ১৪১২ ঘণ্টা, মার্চ ১৭, ২০১২

সম্পাদনা: শিমুল সুলতানা, নিউজরুম এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa