ঢাকা, সোমবার, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৪ জিলহজ ১৪৪৩

শিক্ষা

শিক্ষার উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে: মন্ত্রী বীর বাহাদুর

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩১ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২২
শিক্ষার উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে: মন্ত্রী বীর বাহাদুর

বান্দরবান: পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়কমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেছেন, বর্তমান সরকার শিক্ষার উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। দেশে শিক্ষার হার বাড়াতে বিভিন্নভাবে কাজ করছে সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

রোববার (২২মে) সকালে বান্দরবান কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

এসময় মন্ত্রী বলেন, বান্দরবান শিক্ষা ক্ষেত্রে আগের চেয়ে এখন অনেকটাই এগিয়েছে। জেলারর দুর্গম এলাকাতেও এখন স্কুল, কলেজ ,মাদরাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠছে। শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই, একজন সুশিক্ষিত ব্যক্তি সমাজ ও দেশের জন্য সম্পদ। আর অশিক্ষিত ব্যক্তি সমাজের জন্য বোঝা। তাই সবাইকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে, আর দেশ ও জাতির উন্নয়নে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

তিনি আরও বলেন , বান্দরবান কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ আগের চেয়ে অনেক এগিয়ে গেছে। এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মান আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে।

এসময় মন্ত্রী শিক্ষকদের নতুন প্রজন্মকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলা এবং মাদক থেকে দূরে থাকার জন্য সর্বোচ্চ জ্ঞান দেওয়ার আহ্বান জানান।

জেলা সদরের অরুণ সারকী টাউন হলে জেলা প্রশাসক (ডিসি) ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

বান্দরবান কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইফুর রহমান সিদ্দিকী, কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. সাইফুল ইসলাম, সহকারী প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আব্দুল হক, প্রভাষক মো.জাহেদুল ইসলাম (সুমন), প্রভাষক মো. আবুল হোসাইন কুতুবী, প্রভাষক নরেন দাশ, সহকারী শিক্ষক তড়িৎ বড়ুয়া, সহকারী শিক্ষক মাসুদুর রহমান, সহকারী শিক্ষক নার্গিস আক্তার, রুপন কান্তি নাথ, শিমু রায়, অং মে প্রু মার্মা, প্রীতি দাশ পিংকি, বামং সিং মার্মাসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী অভিভাবক, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার ৬৫টি ইভেন্টে অংশ নেওয়া ১৯৫ জন বিজয়ীকে পুরষ্কার বিতরণ এবং ‘সৃষ্টিসুখ’ নামে একটি বার্ষিকীর মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

এ সময় বান্দরবান কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘণ্টা, ২২ মে, ২০২২
এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa