ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিক্ষা

শিক্ষার্থীদের বাড়ি পৌঁছাতে চার বিভাগে বাস দিচ্ছে ইবি

ইবি করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০৪ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০২১
শিক্ষার্থীদের বাড়ি পৌঁছাতে চার বিভাগে বাস দিচ্ছে ইবি

ইবি: ‘লকডাউনে’ বিভিন্ন মেসে আটকে পড়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থীদের বাড়ি পাঠাতে নিজস্ব পরিবহনে চার বিভাগীয় শহরে বাস দিচ্ছে প্রশাসন।  

আগামী ১৬ ও ১৮ জুলাই ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা ও রংপুর বিভাগের উদ্দেশে গাড়ি ছেড়ে যাবে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।  

এসময় তিনি বলেন, শুধুমাত্র যারা গুগল ফরমে তথ্য দিয়েছিলেন, তাদের তালিকা করে আগামী ১৬ ও ১৮ জুলাই রাজশাহী, খুলনা, রংপুর ও ঢাকা বিভাগে পৌঁছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে গাড়ির শিডিউল প্রকাশ করা হয়েছে। এখন ভালোভাবে শিক্ষার্থীরা পৌঁছাতে পারলেই হয়। আমি ব্যক্তিগতভাবে অত্যন্ত আনন্দিত শিক্ষার্থীবান্ধব এ কাজে অংশীদার হতে পেরে।

ওয়েবসাইটে প্রকাশিত শিডিউল থেকে দেখা যায়, ঢাকা বিভাগে তিনটি বাস আগামী ১৬ জুলাই ছেড়ে যাবে। একটি বাস ক্যাম্পাস-ঝিনাইদহ-রাজবাড়ী মোড়-ফেরিঘাট হয়ে ঢাকা যাবে। একটি বাসে ঢাকা, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, সিলেট ও বরিশাল বিভাগের শিক্ষার্থীরা যাবেন। দ্বিতীয় বাসটি ক্যাম্পাস-কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী-মানিকগঞ্জ হয়ে ঢাকা যাবে। তৃতীয় বাসটি ক্যাম্পাস-কুষ্টিয়া-বনপাড়া-বঙ্গবন্ধু সেতু হয়ে ঢাকা যাবে। বাস দু’টিতে ঢাকা, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ ও সিলেট অঞ্চলের শিক্ষার্থীরা যাবেন।

একই দিনে খুলনা অঞ্চলেও যাবে দু’টি বাস। একটি বাস কুষ্টিয়া এবং অন্যটি ঝিনাইদহ থেকে ছেড়ে যশোর, খুলনা যাবে। যশোর, খুলনা ও তার পার্শ্ববর্তী জেলার শিক্ষার্থীরা বাস দু’টিতে যাবেন।

মাঝখানে একদিন গ্যাপ দিয়ে আগামী ১৮ জুলাই রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে যাবে তিনটি করে মোট ছয়টি বাস। ক্যাম্পাস-কুষ্টিয়া-নাটোর রাজশাহী যাবে তিনটি বাস। তিনটি বাসে রাজশাহী এবং তার পার্শ্ববর্তী জেলার শিক্ষার্থীরা যাবেন। অপরদিকে ক্যাম্পাস-কুষ্টিয়া-নাটোর-বগুড়া হয়ে রংপুর হয়ে যাবে আরো তিনটি বাস। বগুড়া, রংপুর ও তার পার্শ্ববর্তী জেলার শিক্ষার্থীরা এ তিনটি বাসে যাবেন।

প্রতিটি বাস নির্ধারিত দিনে কুষ্টিয়ার কাস্টম মোড় এবং ঝিনাইদহ জেলার আরাপপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে সকাল ৬টায় ছেড়ে যাবে।  

জানা যায়, গত ৭ জুলাই আটকে পড়া শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব পরিবহনে বিভাগীয় শহরে পৌঁছানোর দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বরাবর স্মারকলিপি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র মৈত্রী। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম আটকে পড়া শিক্ষার্থীদের তালিকার ভিত্তিতে পরিকল্পনা করার নির্দেশনা দেন।  

পরে শিক্ষার্থীদের তালিকা তৈরি করতে সোমবার (১২ জুলাই) পর্যন্ত গুগল ফর্ম পূরণের নির্দেশনা দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। নির্ধারিত সময়সীমা শেষে মেসে অবস্থানকারী ৭৪৪ জন শিক্ষার্থী তাদের তথ্য দেন। এর ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থীদের বাড়ি পৌঁছানোর লক্ষ্যে বাস দেওয়ার অনুমতি দেয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৩ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০২১
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa