ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২

শিক্ষা

রাবি উপাচার্যকে শুধু রুটিন দায়িত্ব পালনের আহ্বান

রাবি করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২০
রাবি উপাচার্যকে শুধু রুটিন দায়িত্ব পালনের আহ্বান উপাচার্য অধ্যাপক এম. আব্দুস সোবহান

রাবি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। এর পরিপ্রেক্ষিতে উপাচার্যকে শুধু রুটিন দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়েছেন দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের সদস্যরা।

সোমবার (২৬ অক্টোবর) বিকেলে উপাচার্য এবং রেজিস্ট্রার বরাবর লিখিত আবেদনপত্রের মাধ্যমে এ আহ্বান জানানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিস ছুটি থাকায় মেইলের মাধ্যমে এ আবেদনপত্র পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) এটি সশরীরে সংশ্লিষ্ট দফতরে জমা দেওয়া হবে।  

উপাচার্যের দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনের আহ্বায়ক অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বলা হয়, গত ২১ ও ২২ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ইউজিসি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসনের দুর্নীতি-অনিয়ম স্বজনপ্রীতি নির্যাতন ও নিয়োগ বাণিজ্য সম্পর্কে তদন্ত প্রতিবেদন প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর, শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও দুর্নীতি দমন কমিশনে পেশ করেছেন বলে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছি।  

সংবাদপত্রে প্রকাশিত সংবাদে জানা যায় যে, বর্তমান উপাচার্যসহ প্রশাসনের কতিপয় সদস্যের বিরুদ্ধে তারা ২৫টি অভিযোগের প্রমাণ পেয়ে সুনির্দিষ্ট সুপারিশমালা দিয়েছেন।  

চিঠিতে আরও বলা হয়, এমন সংবাদে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমাজ কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ ও মর্মাহত। সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকবৃন্দ আগামী ২৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য শিক্ষা পরিষদ সভায় শুধুমাত্র একাডেমিক বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানাচ্ছি একইসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনার ক্ষেত্রে উপাচার্যকে শুধুমাত্র রুটিন দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানাচ্ছি।  
জানতে চাইলে অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলাম টিপু বাংলানিউজকে বলেন, রুটিন দায়িত্ব বলতে উপাচার্যকে একাডেমিক বিষয় যেমন ডিগ্রি প্রদান, সিলেবাস-কারিকুলাম প্রণয়নসহ ছোটখাটো প্রাসঙ্গিক কিছু বিষয়ের দায়িত্ব পালন করার আহ্বান জানিয়েছি। যেহেতু ইউজিসি তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে তাই কোনো গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত নেওয়া থেকে বিরত থাকতে তাকে অনুরোধ করেছি।  

বাংলাদেশ সময়: ২১০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২০
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa