ঢাকা, শুক্রবার, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

শিক্ষা

চার শর্তে ‘ও’ লেভেল, ‘এ’ লেভেল পরীক্ষা নেওয়ার অনুমতি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০
চার শর্তে ‘ও’ লেভেল, ‘এ’ লেভেল পরীক্ষা নেওয়ার অনুমতি পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা/ফাইল ফটো

ঢাকা: পরীক্ষার্থী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে তার দায় ব্রিটিশ কাউন্সিলকে বহন করাসহ চার শর্তে বাংলাদেশে ‘ও’ লেভেল এবং ‘এ’ লেভেল পরীক্ষা নেওয়ার অনুমতি দিয়েছে সরকার।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সম্প্রতি ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টরকে অনুমতির চিঠিতে এমন শর্ত দিয়েছে।


 
এ বিষয়ে রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক আদেশে বলা হয়, ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের পরিচালনায় ‘ও’ লেভেল এবং ‘এ’ লেভেল পরীক্ষা চার শর্তে আগামী ১ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত নেওয়ার অনুমতি দিয়ে মন্ত্রণালয় সম্মতি জানিয়েছে।
 
শর্তগুলো হলো- স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের স্বাস্থ্যবিধি ও ডব্লিউএইচও এর গাইডলাইন কঠোরভাবে অনুসরণ করতে হবে। আবেদন মোতাবেক সারাদেশে ৩৫টি ভেন্যুতে প্রতিদিন সর্বমোট এক হাজার ৮শ শিক্ষার্থীর বেশি পরীক্ষা নেওয়া যাবে না এবং প্রতিজন শিক্ষার্থীকে কমপক্ষে ৬ ফুট দূরত্বে বসাতে হবে।
 
পরিস্থিতি বিবেচনায় যেকোনো সময় সরকার জনস্বার্থে পরীক্ষা নেওয়ার অনুমতি বাতিল করতে পারে।
 
‘পরীক্ষা চলাকালীন কোননো পরীক্ষার্থী কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হলে ব্রিটিশ কাউন্সিলকে এর দায়-দায়িত্ব বহন করতে হবে। ’
 
এরআগে গত ২৪ সেপ্টেম্বর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের ‘ও’ লেভেল এবং ‘এ’ লেভেল পরীক্ষা গ্রহণের ঘোষণা দেয় ব্রিটিশ কাউন্সিল।
 
ওইদিন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানায়, বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আন্তরিক সহায়তায় ব্রিটিশ কাউন্সিল অক্টোবর-নভেম্বর ২০২০-এর জিসিএসই, আইজিসিএসই, ও-লেভেল এবং আন্তর্জাতিক এ-লেভেল পরীক্ষা আগে উল্লিখিত সময়সূচি অনুযায়ী আয়োজন করতে যাচ্ছে।
 
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কোভিড-১৯-এর ফলে সৃষ্ট যে অনিশ্চয়তাপূর্ণ সময়ের মধ্য দিয়ে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকরা যাচ্ছেন, ব্রিটিশ কাউন্সিলের পক্ষ থেকে তাদের অবিচল অধ্যবসায় ও ধৈর্য ধারণের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমরা একই সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে আমাদের অক্টোবর-নভেম্বর ২০২০-এর পরীক্ষা নিতে সহযোগিতা করার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
 
যদিও মে-জুন সিরিজটি বিশ্বব্যাপী বাতিল করা হয়েছিল, শিক্ষার্থীদের অক্টোবর-নভেম্বর ২০২০ সিরিজে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ করে দিতে পারার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। প্রায় পাঁচ হাজার ২শ শিক্ষার্থী তাদের অক্টোবর-নভেম্বর ২০২০ পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য গত জুলাই-আগস্টে রেজিস্ট্রেশন করেছে। এই পরীক্ষায় আর্ট ও ডিজাইন সংক্রান্ত কোয়ালিফিকেশন ছাড়া ইউকে এক্সাম বোর্ড শুধু পরীক্ষার ভিত্তিতেই পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করবে।
 
অবশ্য করোনা পরিস্থিতির মধ্যে ‘ও’ লেভেল এবং ‘এ’ লেভেল পরীক্ষা বাতিলে প্রধামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে শিক্ষার্থীরা। তারা ক্লাস মূল্যায়নের মাধ্যমে গ্রেড পয়েন্ট দেওয়ার দাবি জানিয়ে ওইদিনই রাজধানীর ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনে (ক্রাব) এক সংবাদ সম্মেলন করেছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০
এমআইএইচ/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa