ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ আগস্ট ২০২০, ২৩ জিলহজ ১৪৪১

শিক্ষা

অনলাইন শিক্ষার নামে প্রহসন বন্ধের দাবি ছাত্রমৈত্রীর

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৬ ঘণ্টা, জুলাই ৬, ২০২০
অনলাইন শিক্ষার নামে প্রহসন বন্ধের দাবি ছাত্রমৈত্রীর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: করোনার ক্রান্তিকালীন সময়ে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ, প্রযুক্তি ও উচ্চগতির ইন্টারনেট সেবা নিশ্চিত করার যথাযথ পূর্বপ্রস্তুতি ছাড়া শুরু হওয়া অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমকে প্রহসন অ্যাখ্যা দিয়ে বন্ধের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী।

সোমবার (০৬ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

মানববন্ধন থেকে বর্তমানে সৃষ্ট অর্থনৈতিক মন্দা বিবেচনায় শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া মওকুফ করার জন্য বাড়ির মালিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি অতুলন দাস আলোর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক কাজী আব্দুল মোতালেব জুয়েলের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী সংহতি’র সাধারণ সম্পাদক বাচ্চু মিয়া, বাংলাদেশ যুব মৈত্রীর কেন্দ্রীয় নেতা মামুন হাওলাদার মানিক, ছাত্র মৈত্রীর সহ-সাধারণ সম্পাদক শাফিউর রহমান সজীব, ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি ইয়াতুন্নেসা রুমা, ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি ও ওয়ার্ল্ড বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সংগঠক লিখন মোরশেদ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, করোনা ভাইরাস সমগ্র দেশকে স্থবির করে দিয়েছে। মানুষের স্বাভাবিক আয় তলানীতে গিয়ে ঠেকেছে। বেসরকারি খাতে কর্মরত অসংখ্য মানুষ হারিয়েছে তার পেশা। হিমশিম খাচ্ছে পরিবারের খরচ চালাতে। পরিবারের অর্থনৈতিক মন্দার প্রভাব পড়েছে শিক্ষার্থী ওপর। এমন সময় শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেতন, সেমিস্টার ফি পরিশোধ করলেও তাদের বাড়তি ইন্টারনেটের খরচ বহন করতে হচ্ছে। অধিকাংশ শিক্ষার্থীর নেই স্মার্টফোন, কম্পিউটার বা ল্যাপটপ ও উচ্চগতির ইন্টারনেট সুবিধা।

তারা আরও বলেন, শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের অভাব, ইন্টারনেটের ধীর গতি ও উচ্চমূল্য, প্রযুক্তির অভাবে দেশের প্রায় অর্ধশত শতাংশেরও বেশি শিক্ষার্থী অনলাইন ক্লাসের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তার উপরে চলমান তথাকথিত অনলাইন শিক্ষার মান নিয়েও রয়েছে অনেক প্রশ্ন। এক্ষেত্রে প্রথমে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের পাঠদান ও পরীক্ষার মান ঠিক করতে হবে। শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। বিনামূল্যে শিক্ষার্থীদের জন্য উচ্চগতির ইন্টারনেট সেবা নিশ্চিত করতে হবে, দিতে হবে প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি সহায়তা।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৬ ঘণ্টা, জুলাই ০৬, ২০২০
এসকেবি/এইচএডি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa