bangla news

যশোরে নতুন বইয়ের ঘ্রাণে মাতলো সাড়ে ৬ লাখ শিক্ষার্থী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-০১ ৪:২৪:০৮ পিএম
যশোরে নতুন বছরে পাঠ্যপুস্তক হাতে শিক্ষার্থীরা। ছবি: বাংলানিউজ

যশোরে নতুন বছরে পাঠ্যপুস্তক হাতে শিক্ষার্থীরা। ছবি: বাংলানিউজ

যশোর: সারাদেশের মতো যশোরে বিভিন্ন স্কুলে নতুন বইয়ের উৎসব পালিত হয়েছে। উৎসবের মাধ্যমে নতুন শিক্ষাবর্ষের প্রথম দিনটিতে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যের নতুন বই তুলে দেওয়া হয়েছে।

বছরের প্রথমদিনই প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি এবং মাধ্যমিক ও দাখিল বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই নিয়ে ঘরে ফিরেছে।এবছর  সাড়ে ছয় লাখ শিক্ষার্থীর মধ্যে সাড়ে ৭৫ লাখ বই বিতরণ করা হয়।

বুধবার (১ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় যশোর জিলা স্কুলে বই উৎসবের উদ্বোধন করা হয়। যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ প্রধান অতিথি হিসাবে এ বই উৎসবের উদ্বোধন করেন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক( শিক্ষা ও আইসিটি) শাম্মী ইসলাম, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এ এস এম আব্দুল খালেক, সরকারী শিক্ষা অফিসার আব্বাস উদ্দীন, জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক কে এম গোলাম আযম প্রমুখ।

জেলা প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস জানায়, উৎসবমুখর পরিবেশে পহেলা জানুয়ারি যশোরে সব বিদ্যালয়ে উদযাপিত হচ্ছে বর্ণিল বই উৎসব। যশোর জেলায় মাধ্যমিক ও দাখিল পর্যায়ে তিন লাখ ৩৮ হাজার ৩৯৫ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৪৪ লাখ ৪৫ হাজার ২৬৮টি বই দেওয়া হবে। অন্যদিকে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী পর্যায়ের তিন লাখ ছয় হাজার দুই শ’ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১৪ লাখ ৫৫ হাজার ৭৫টি বই সরবরাহ করা হয়েছে।

বই বিতরণ সম্পর্কে জানতে চাইলে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শেখ অহিদুল আলম বাংলানিউজকে বলেন, এক মাস আগেই জেলার সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই পৌঁছে যায় এবং ১ জানুয়ারি সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই উৎসব হয়েছে।

এ বিষয়ে যশোর জেলা শিক্ষা অফিসার এএসএম আবদুল খালেক বলেন, এক সময় যশোর অঞ্চলে বইয়ের জন্য মাসের পর মাস শিক্ষক ও অভিভাবকদের অপেক্ষা করতে হতো। অনেক অভিভাবকের নতুন বই কেনার সামর্থ্য ছিলনা। কিন্তু বর্তমান সরকার এখন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে বছরের প্রথমদিনই পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০১৯
ইউজি/এবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   যশোর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-01 16:24:08