ঢাকা, শনিবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০, ২৪ জিলহজ ১৪৪১

শিক্ষা

বই উৎসবে বরিশালে সোয়া ২ কোটি নতুন বই

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০১৯
বই উৎসবে বরিশালে সোয়া ২ কোটি নতুন বই ছবি: প্রতীকী

বরিশাল: বরিশালে ২০২০ সালে ১ জানুয়ারি নতুন শিক্ষাবর্ষের বই উৎসবে প্রাথমিক-মাধ্যমিক, ইবতেদায়ী-দাখিল, ভোকেশনাল-কারিগরি পর্যায়ে দুই কোটি ২২ লাখ ১২ হাজার ১২১ কপি নতুন বই শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিতরণ করা হবে।

এর মধ্যে শুধু মাধ্যমিক স্তরেই বরিশাল অঞ্চলের ছয় জেলার ১৩ লাখ ৩৭ হাজার ৪১২ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে নতুন বই বিতরণ করা হবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বরিশাল অঞ্চল কার্যালয় থেকে জানা গেছে, বরিশাল বিভাগের ৬ জেলায় মাধ্যমিক স্তরে অর্থাৎ ৬ষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত বাংলা ভার্সনে এক কোটি এক লাখ ১১ হাজার ২২৭ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে।

একই স্তরে ইংরেজি  ভার্সনে ১০ হাজার ১২৭ কপি বই এবং দাখিলে ৪০ লাখ ৭৪ হাজার ৮৭৬ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে।

এছাড়া, এসএসসি ভোকেশনালের (নবম শ্রেণি) জন্য দুই লাখ ৫৯ হাজার ৩৯৬ কপি, দাখিল ভোকেশনাল (নবম শ্রেণি) তিন হাজার সাতশ' কপি এবং এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনালের (ট্রেড) জন্য ৯৩ হাজার ১৮৮ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে। ইবতেদায়ি (প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি) ২২ লাখ ৬০ হাজার ৫৮৮ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে।

অপরদিকে, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বিভাগের ছয় জেলায় প্রাথমিক স্তরে অর্থাৎ প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত ৫১ লাখ ৯৭ হাজার ১৮৫ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে এবং প্রাক প্রাথমিকে ১ লাখ ৯৪ হাজার ৩৮৫ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে। এর বাইরে ইংরেজি ভার্সনে সাত হাজার ৪৪৯ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বরিশাল অঞ্চলের পরিচালক অধ্যাপক মো. মোয়াজ্জেম হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, বর্তমান সরকার বছরের প্রথম দিন অর্থাৎ ১ জানুয়ারি ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিচ্ছে। বছরের প্রথম দিনে এমনভাবে আনন্দঘন উৎসবমুখর পরিবেশে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেওয়ার নজির আর কোথাও নেই। এটি সরকারের এই যুগান্তকারী পদক্ষেপ। ইতোমধ্যে চাহিদা অনুযায়ী স্ব স্ব উপজেলায় প্রয়োজনীয় বই পৌঁছে গেছে। বিদ্যালয়ে বুঝিয়ে দেওয়ার কার্যক্রমও চলছে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আরিফ বিল্লাহ বাংলানিউজকে বলেন, নিয়মানুযায়ী সব উপজেলায় বছরের প্রথম দিনে বই উৎসব আয়োজনের প্রস্তুতি চলছে। বই সময় মতো সব জায়গায় পৌঁছে যাওয়াতে এখন পর্যন্ত কোনো উপজেলা থেকে অভিযোগ আমাদের কাছে আসেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
এমএস/এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa