bangla news

জেএসসির কেন্দ্রের পাশে ড্রাইভিং লাইসেন্সের পরীক্ষা!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১৪ ৪:৪৬:৩০ পিএম
জেএসসি পরীক্ষাকেন্দ্রের পাশেই অনুষ্ঠিত হয় ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রার্থীর পরীক্ষা। ছবি: বাংলানিউজ

জেএসসি পরীক্ষাকেন্দ্রের পাশেই অনুষ্ঠিত হয় ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রার্থীর পরীক্ষা। ছবি: বাংলানিউজ

খাগড়াছড়ি: বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ছিল জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেটের (জেএসসি) গণিত পরীক্ষা। একইসময়ে পরীক্ষাকেন্দ্র ঘেঁষে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রার্থীদের ব্যবহারিক পরীক্ষা। লাইসেন্স প্রার্থীদের আনাগোনায় পরীক্ষার্থীদের মনযোগ বিঘ্নিত হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন অভিভাবকরা।

জানা যায়, ১৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষার্থীদের গণিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা চলাকালে খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের পাশের মাঠে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রার্থীদের ব্যবহারিক পরীক্ষা নেয় খাগড়াছড়ি বিআরটিএ। ১৫০ জন ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রার্থীর পরীক্ষা শুরু হয় সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে।

অন্যদিকে জেএসসি পরীক্ষা শুরু হয় সকাল ১০ টায়। পরীক্ষা চলাকালে ১৪৪ ধারায় কেন্দ্রের ২০০ গজের মধ্যে ৫ জনের অধিক ব্যক্তির জমায়েত নিষিদ্ধ হলেও ১৫০ জন ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রার্থী, বিআরটিএ কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ উৎসুক জনতার ভিড় দেখা যায়। একসঙ্গে এত মানুষের জমায়েতের কারণে জেএসসি পরীক্ষার্থীদের মনোযোগ বিঘ্নিত হচ্ছিল বলে অভিযোগ করেছেন অনেক অভিভাবক।

এদিকে জেএসসি পরীক্ষার বিষয়টি জানতেন না বলে দাবি খাগড়াছড়ি বিআরটিএ’র সহকারী পরিচালক প্রদীপ কুমারের। তিনি বলেন, পাশের স্কুলে পরীক্ষা চলছে সেটা জানতাম না। জানলে অন্য কোথাও লাইসেন্স প্রার্থীদের ব্যবহারিক পরীক্ষার ব্যবস্থা করতাম।

এদিকে বেশ কয়েকজন অভিভাবক জেএসসি পরীক্ষাকেন্দ্রের পাশে বিআরটিএ কর্তৃপক্ষের লাইসেন্স প্রার্থীদের ব্যবহারিক পরীক্ষার আয়োজন নিয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে অভিযোগ দিলে ১২টার কিছু আগে মাঠের এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে ব্যবহারিক পরীক্ষা স্থানান্তর করা হয়।

খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, জেএসসি পরীক্ষার্থীদের অসুবিধা হচ্ছে সেজন্য প্রতিনিধি পাঠিয়ে আমি মাঠের অপর প্রান্তে ব্যবহারিক পরীক্ষা স্থানান্তর করিয়েছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
এডি/এইচএডি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   খাগড়াছড়ি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-14 16:46:30