ঢাকা, বুধবার, ১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ অক্টোবর ২০১৯
bangla news

বুয়েটের জুনিয়রদের ওপর বেশি ‘আগ্রাসী’ ছিলেন অমিত সাহা

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১০ ১:৩০:৩০ পিএম
স্ক্রিনশট ও অমিত সাহা

স্ক্রিনশট ও অমিত সাহা

ঢাকা: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী অমিত সাহা। মেধাবী শিক্ষার্থী হিসেবে বুয়েটে ভর্তি হলেও জড়িয়ে পড়েন রাজনীতিতে। বিশ্ববিদ্যালয় কমিটিতে পদ পেতে নিজেকে আগ্রাসী হিসেবে পরিচিত করেন ক্যাম্পাসে। ফলও পান দ্রুত। পদ পান বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের আইন বিষয়ক উপ-সম্পাদক হিসবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ১৭ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা জানান, আমাদের ব্যাচের অধিকাংশ শিক্ষার্থী সিনিয়রদের মধ্যে একজনকে পেছনে সবচেয়ে বেশি গালমন্দ করে। তিনি হচ্ছেন অমিত সাহা। তাকে সবেচেয়ে আগ্রাসী দেখা যেত।

সোমবার (৬ অক্টোবর) শেরেবাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে পিটিয়ে হত্যা করা হয় ১৭তম ব্যাচের ছাত্র আবরার ফাহাদকে। এই কক্ষের বাসিন্দা ছিলেন অমিত সাহা। এখানে জুনিয়রদের নিয়মিত র‌্যাগিংয়ের নামে নির্যাতন করা হতো।

এদিকে ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে তার সংশ্লিষ্টতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অমিত সাহার নির্যাতনের বিভিন্ন ঘটনা প্রকাশ পায়। বুয়েট ছাত্রলীগের ফেসবুক গ্রুপে কাকে র‌্যাগ দেওয়া হবে সে বিষয়ে আলোচনা হতো। 

সেরকম একটি ঘটনায় এক সিনিয়রকে চটকানি দেওয়ার জন্য আহ্বান জানানো একটি পোস্টে অমিত কমেন্ট করেন, বুয়েট ছাত্রলীগ সুশীল হবে, মারবেও না, বাট কোনো সুশীল নন-পলিটিক্যাল একটা কথা বলার সাহসও রাখবে না। ইদানীং সুশীলদের কথা অনেক বেশি বাড়ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩২৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১০, ২০১৯
এসকেবি/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-10 13:30:30