bangla news

গোপালগঞ্জের সেই ভিসিকে প্রত্যাহারের সুপারিশ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-২৯ ৫:১৬:৪৪ পিএম
ভিসি ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন

ভিসি ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন

ঢাকা: অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগের প্রমাণ পেয়ে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের (ভিসি) ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনকে প্রত্যাহারের সুপারিশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) তদন্ত কমিটি। 

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পাঠানো ইউজিসির তদন্ত প্রতিবেদনে ভিসিকে প্রত্যাহারের সুপারিশ করা হয়েছে বলে ইউজিসির দায়িত্বশীল সূত্র বাংলানিউজকে জানিয়েছে।

ভিসির বিরুদ্ধে গঠিত তদন্ত কমিটি রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) প্রতিবেদনটি ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মো. কাজী শহীদুল্লাহর কাছে জমা দেয়। পরে সেটি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়া হয়েছে বলে জানান ইউজিসি চেয়ারম্যান।

ইউজিসি চেয়ারম্যান বাংলানিউজকে বলেন, আমরা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে খুব দ্রুত তদন্ত কাজ শেষ করে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন পাঠিয়ে দিয়েছি। প্রতিবেদনে কী সুপারিশ এসেছে সে বিষয়ে বিস্তারিত বলেননি ইউজিসি চেয়ারম্যান।

ইউজিসির একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বাংলানিউজকে বলেন, অনিয়ন-দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এবং ভিসি নাসিরউদ্দিনের বিরুদ্ধে ছাত্র অসন্তোষ দেখা যাওয়ায় তাকে প্রত্যাহারের সুপারিশ করা হয়েছে প্রতিবেদনে।

তদন্ত কমিটি গঠন করে মাত্র সাতদিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার বিষয়টিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন ইউজিসি চেয়ারম্যান।

ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেন, প্রতিবেদনে বিভিন্ন সুপারিশ এসেছে। সেই সুপারিশ মন্ত্রণালয়ের পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রণালয় ব্যবস্তা নেবে।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইন সিলেটে থাকায় প্রতিবেদনের বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় হতে এখনও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয়টির ভিসি নাসিরউদ্দিনের স্বেচ্ছাচারিতা, অনিয়ম, দুর্নীতি ও নৈতিক স্খলন বিষয় খতিয়ে দেখতে গত ২৩ সেপ্টেম্বর শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের নির্দেশে তদন্ত কমিটি গঠন করে ইউসিজি। কমিটিকে ছাত্র আন্দোলনের প্রকৃত ঘটনা এবং বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে সামগ্রিক তথ্যাদি সংগ্রহ করে প্রতিবেদন দাখিলের অনুরাধ করা হয়।

ইউজিসি সদস্য ড. মুহাম্মদ আলমগীরকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছিল। কমিটি গত ২৫ ও ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত করে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি নাসিরউদ্দিনের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীদের বক্তব্য গ্রহণ করেন।

**গোপালগঞ্জের সেই ভিসির বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন জমা
বাংলাদেশ সময়: ১৭১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯
এমআইএইচ/এসএইচ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-29 17:16:44