bangla news

টাঙ্গাইলে প্রাথমিকে সহস্রাধিক শিক্ষক পদ শূন্য

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-১৭ ১০:০৬:০৮ এএম
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১০২৪ জন শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। এরমধ্যে প্রধান শিক্ষক ১১১ ও সহকারী শিক্ষকের ৯১৩টি পদ শূন্য রয়েছে। প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের বিপুল সংখ্যক পদ শূন্য থাকায় পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে।

জানা যায়, যেসব বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নেই, সেসব বিদ্যালয়ে সিনিয়র সহকারী শিক্ষকদের চলতি দায়িত্বে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক পদে পদায়ন করা হয়েছে। এতে বিপুল সংখ্যক সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য হয়ে পড়েছে। এছাড়া মামলাজনিত কারণে ৬৪টি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ বন্ধ রয়েছে। জেলায় রাজস্ব খাতভুক্ত সহকারী শিক্ষক শূন্য পদে ৩৪৪ জন, প্রাক-প্রাথমিক সৃষ্ট পদে ৭৯ জন, চলতি দায়িত্ব পদায়নজনিত শূন্য পদে ৪৯০ জনের পদ খালি রয়েছে। এছাড়াও প্রধান শিক্ষক পদে ৪৭ জন ও মামলাজনিত কারণে ৬৪ জন প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, মামলাজনিত কারণে ৬৪টি প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। কারণ হিসেবে জানা যায়, জাতীয়করণকৃত বিদ্যালয় থেকে যেসব সহকারী শিক্ষক প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন অথচ জাতীয়করণের সময় প্রধান শিক্ষক হিসেবে তাদের নাম গেজেটে অন্তর্ভুক্ত হয়নি এবং প্রধান শিক্ষক হিসেবে বেতন স্কেল দেওয়া হয়নি। সেসব সহকারী শিক্ষকরা প্রধান শিক্ষকের দাবিতে আদালতে রিট পিটিশন দায়ের করার কারণে ওইসব বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ রাখা হয়েছে।

মামলাজনিত কারণে ঘাটাইলে ২০টি, সখীপুরে আটটি, বাসাইলে আটটি, সদর উপজেলায় মামলাজনিত কারণে তিনটিসহ সাতটি, কালিহাতীতে মামলাজনিত কারণে নয়টিসহ ২৪টি, মধুপুরে ১৫টি, নাগরপুরে মামলাজনিত কারণে ১৩টিসহ ২১টি ও ধনবাড়ীতে মামলাজনিত কারণে আটটি প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। এছাড়া ঘাটাইলে রাজস্ব খাতভুক্ত সহকারী শিক্ষক শূন্য পদের সংখ্যা ১৩, প্রাক-প্রথামিক সৃষ্ট শূন্য পদের সংখ্যা আটটি, চলতি দায়িত্ব পদায়নজনিত শূন্য পদের সংখ্যা ৫৫টি। সখীপুরে রাজস্ব খাতভুক্ত সহকারী শিক্ষক শূন্য পদের সংখ্যা ৭৫, প্রাক-প্রাথমিকে চার, চলতি দায়িত্ব পদায়নজনিত শূন্য পদের সংখ্যা ৪৫। গোপালপুরে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা ৯৬, প্রাক-প্রাথমিকে ছয়, চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ৫২। বাসাইলে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা চার, প্রাক-প্রাথমিকে ছয়, চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ৪০। সদরে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা এক, প্রাক-প্রাথমিকে এক, চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ২৯। দেলদুয়ারে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা এক, চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ৩৪। মির্জাপুরে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা ১০, প্রাক-প্রাথমিকে ১৭, চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ৬০। কালিহাতীতে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা তিন, প্রাক-প্রাথমিকে পাঁচ, চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ৫১। মধুপুরে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা ২৮, প্রাক-প্রাথমিকে ১২, চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ৩১। 

নাগরপুরে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা ৫৮, প্রাক-প্রাথমিকে ১০, চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ৩৪। ভূঞাপুরে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা ২৯, প্রাক-প্রাথমিকে তিন, চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ৩৭। ধনবাড়ীতে রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদের সংখ্যা ২৬, প্রাক-প্রাথমিকে সাত ও চলতি দায়িত্বে শূন্য পদের সংখ্যা ২২।

টাঙ্গাইল জেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির যুগ্ম-সম্পাদক হারুনার রশীদ বাংলানিউজকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষক শূন্যতার কারণে মানসম্মত পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে। দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে শিক্ষার গুণগতমান ও কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জন সম্ভব হবে।

টাঙ্গাইল জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল আজিজ বাংলানিউজকে জানান, জেলার প্রধান ও সহকারী শিক্ষকের শূন্য পদের তালিকা মন্ত্রণালয়ে পাঠনো হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১০০৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯
এনটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-17 10:06:08