ঢাকা, শুক্রবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ জুলাই ২০২১, ১২ জিলহজ ১৪৪২

শিক্ষা

চবিতে ভর্তি জালিয়াতিতে আটক ২

চবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০১৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১২, ২০১১
চবিতে ভর্তি জালিয়াতিতে আটক ২

চবি: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) আইন অনুষদের অধীনে আইন বিভাগে প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি করায় ভাই ও বোনকে আটক করেছে কর্তৃপক্ষ।

আটকরা হলেন- দিদারুল আলম ও রোকসানা আকতার।

তারা সম্পর্কে ভাইবোন। গ্রামের বাড়ি কক্সবাজার জেলায়।

রোববার আইন অনুষদের ভর্তি কার্যক্রমে কাগজপত্রে অমিল থাকায় তাদের আটক করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আসাদুল হক বাংলানিউজকে জানান, ‘গত ১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত আইন অনুষদের ভর্তি পরীক্ষার উত্তরপত্রে (ওএমআর) বোন (রোকসানা আকতার) তার ভাইয়ের (দিদারুল আলম) উত্তরপত্র (ওএমআর) পূরণ করেন। অভিযুক্ত বোন  পরীক্ষার উত্তরপত্রে পরীক্ষার্থীর নামের জায়গায়  ‘রোকসানা আকতার’ লিখলেও বৃত্ত ভরাট করে ‘রোকসানা আলম’ নামে এবং ক্রমিক নম্বরের জায়গায় নিজের পরিবর্তে ভাইয়ের ক্রমিক নম্বর ০২৬৬৯ লিখে বৃত্ত পূরণ করেন। ’

পরীক্ষা চলার সময় জালিয়াতির বিষয়টি পরীক্ষা কক্ষে দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষক ধরতে পারেন নি। কিন্তু গত ৪ ডিসেম্বর মৌখিক পরীক্ষার সময় ভর্তি কার্যক্রমে প্রবেশপত্রের তথ্যের সঙ্গে উত্তরপত্রের (ওএমআর) তথ্যে অসঙ্গতির বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে আসে।

পরে বিষয়টি প্রক্টরিয়াল বডিকে অবহিত করা হলে তারা অভিযুক্তদের নিরাপত্তা দপ্তরে নিয়ে আসেন। সেখানে অভিযুক্তের বড় ভাই এবং অভিযুক্ত বোনকে (রোকসানা আকতার) ডেকে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারা তাদের দোষ স্বীকার করেন। পরে তাদের বড় ভাই ফিরোজ আলম প্রক্টরিয়াল বডির কাছে লিখিত দিয়ে রোববার রাতে তাদের জামিনে ছাড়িয়ে নেন বলে জানান সহকারী প্রক্টর আলী হায়দার।
 
উল্লেখ্য, ভর্তি পরীক্ষায় ভাইয়ের উত্তরপত্র পূরণ করে ২৩তম হয়েছেন রোকসানা আকতার। কিন্তু ২৩তম হলেও রোববার আইন অনুষদে ভর্তি হতে এসে ভাই দিদারুল আলম ধরা পড়েন।

বাংলাদেশ সময়: ০০১২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১২, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa