ঢাকা, শুক্রবার, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ জুলাই ২০১৯
bangla news

সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতি, ঝালকাঠিতে আটক ৭

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২১ ৫:৩০:২৮ পিএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ঝালকাঠি: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় নানাভাবে জালিয়াতি করার সময় ঝালকাঠিতে সাত জনকে আটক করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

এদের মধ্যে চারজনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে উঠিয়ে তিনজনকে এক বছর করে কারাদণ্ড এবং একজনকে এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অন্য তিনজনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়।

শুক্রবার (২১ জুন) বিকেলে বিষয়টি বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেন ঝালকাঠি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শোনিত কুমার গায়েন।

থানা পুলিশ সূত্রে জানায়, ঝালকাঠির কৃত্তিপাশা এলাকা থেকে পরীক্ষার্থী মনীষা বিশ্বাস, তার স্বামী রাজাপুরের বাসিন্দা অসীম বিশ্বাস এবং ভাই কিশোর দেউড়িকে আটক করা হয়। তারা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরীক্ষার প্রশ্নের উত্তর তৈরি করছিলেন এবং বিভিন্ন কেন্দ্রে সরবরাহেরও চেষ্টা করছিলেন। পরে তাদের আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করা হলে প্রত্যেককে একবছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

এছাড়া ঝালকাঠি শহরের মহিলা কলেজ কেন্দ্র সংলগ্ন এলাকা থেকে রাজাপুর উপজেলার বলাই বাড়ি গ্রামের নুরুল ইসলাম রিপন, ঝালকাঠি সদরের চর ভাটারাকান্দা এলাকার রাশেদ গাজী ও খাগুটিয়া এরাকার সিয়াম হাওলাদার নামের তিনজনকে আটক করে পুলিশ।  তারা মোবাইলের মাধ্যমে প্রশ্নের উত্তরপত্র সরবরাহ করছিলেন। এর বাইরে আরও একজনকে অসদুপায় অবলম্বন করায় আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালত তাকে এক হাজার টাকা জরিমানা করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৭ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০১৯
এমএস/এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-21 17:30:28