ঢাকা, সোমবার, ১০ চৈত্র ১৪২৫, ২৫ মার্চ ২০১৯
bangla news

এমপিও’র কাজে অর্থ চাইলে পুলিশে দিন: শিক্ষা মন্ত্রণালয়

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-২০ ৫:১৪:১৭ পিএম
লোগো

লোগো

ঢাকা: সারাদেশে দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির ঘোষণার পর কোনো প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি, অনুমোদন বা কোনো কাজে কেউ অর্থ চাইলে তাকে পুলিশে সোপর্দ করার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইন স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তিতে মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) এ নির্দেশ দেয়া হয়েছে।  

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদ অধিবেশনে এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছেন, এমপিওভুক্তির জন্য সাড়ে নয় হাজার প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আবেদন এসেছে। এরমধ্যে দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে যোগ্য হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে। শিগগিরই ধাপে ধাপে এমপিওভুক্তির কাজ শুরু করা হবে। 

গণবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে বিভিন্ন প্রতারক চক্র সরাসরি বা শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও তার অধীন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের নাম ভাঙিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রেজিস্ট্রেশন, এমপিওভুক্তকরণ, পাঠদান, একাডেমিক স্বীকৃতি, শ্রেণি খোলা ও শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী বদলিসহ বিভিন্ন কাজ করিয়ে দেয়ার লোভ দেখিয়ে স্কুল, কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ফোন, ই-মেইল, এসএমএস বা চিঠি পাঠিয়ে টাকা দাবি করছে। 

কোনো কোনো ক্ষেত্রে তাদের পক্ষ থেকে অধ্যক্ষ বা প্রধান শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্টদের নিকট ব্যক্তিগতভাবেও যোগাযোগ করার চেষ্টা করছে মর্মে বিভিন্ন সূত্রে জানা যাচ্ছে।

এতে বলা হয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কোনো কাজে টাকা প্রদানের কোনো প্রয়োজন নেই। শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে যেসকল সেবা প্রদান করা হয়ে থাকে তার জন্য সুনির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে এবং তার ভিত্তিতেই সেবা প্রদান করা হয়ে থাকে।

এ সংক্রান্ত সকল তথ্যদি মন্ত্রণালয়ের নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে নিয়মিতভাবে প্রকাশ করা হয়ে থাকে বলেও জানানো হয় ওই গণবিজ্ঞপ্তিতে।

গণবিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, এ ধরনের প্রতারক চক্র বা শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও এর অধীন কোনো প্রতিষ্ঠানের কথিত কর্মকর্তা কর্তৃক ই-মেইল, এসএমএস, ফোন এবং চিঠিপত্র কিংবা তাদের ব্যক্তিগত যোগাযোগের ভিত্তিতে কাউকে কোনো টাকা না দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করা হলো। 

কেউ কোনো ধরনের সুবিধা বা টাকা চাইলেই বুঝবেন যে এটা প্রতারণা। তাই সঙ্গে সঙ্গে এ ধরনের প্রতারকদের পুলিশে সোপর্দ করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৯
এমআইএইচ/এমএ 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   শিক্ষা ব্যবস্থা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14