ঢাকা, রবিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১ সফর ১৪৪২

শিক্ষা

মাতৃভাষার বই পাচ্ছে পাহাড়ি শিশুরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারী ১, ২০১৯
মাতৃভাষার বই পাচ্ছে পাহাড়ি শিশুরা বই উৎসবে মেতেছে পাহাড়ি শিক্ষার্থীরা/ছবি: বাংলানিউজ

খাগড়াছড়ি: পাহাড়ি জেলা খাগড়াছড়িতেও চলছে বই উৎসব। জেলার প্রায় ৭০৬ প্রাথমিক ও ১২২ মাধ্যমিক পর্যায়ের বিদ্যালয়ের শিশুরা পাচ্ছে নতুন বই। এদিন সবক’টি বিদ্যালয়েই একযোগে বই বিতরণ করা হয়। মাতৃভাষার বইও এদিন বিতরণ করা হয় অধিকাংশ বিদ্যালয়ে।

প্রাক-প্রাথমিক থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত ১ লাখ ১৭ হাজার ৫০৫ জন শিশুর মধ্যে ৪ লাখ ৭২ হাজার ৪২৪টি বই বিতরণের কথা রয়েছে। এছাড়া মাধ্যমিক পর্যায়ের প্রায় ৪৯ হাজার শিক্ষার্থী পেয়েছে নতুন বই।


 
মঙ্গলবার (১ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় খাগড়াছড়ি সদরের পানখাইয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন বই শিশুদের হাতে তুলে দেন শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা।  

এসময় পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মো. শহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান, পরিষদ সদস্য মংক্যচিং চৌধুরী ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতেমা মেহের ইয়াসমিন উপস্থিত ছিলেন।
 
এদিকে প্রাক-প্রাথমিকের পাহাড়ি শিশুদের হাতে মাতৃভাষার বই বিতরণও শুরু হয়েছে। এ বছর প্রাক-প্রাথমিক, প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির ৩০ হাজার ১২৯ জন চাকমা, মারমা ও ত্রিপুরা শিশু মাতৃভাষার বই পাবে। মাতৃভাষার বইয়ের সঙ্গে মাতৃভাষার বর্ণমালাভিত্তিক খাতাও বিতরণ করা হচ্ছে।
 
গত ২০১৭ সাল থেকে সারাদেশের পাঁচটি মাতৃভাষায় পাঠ্যপুস্তক প্রণয়ন ও পড়াশোনার উদ্যোগ নেয় এনসিটিবি। অপর দু’টি মাতৃভাষা হলো সমতলের সাদরি ও গারো।  
 
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতেমা মেহের ইয়াসমিন জানান, বইয়ের কোনো ঘাটতি নেই। মাতৃভাষার বইও পর্যাপ্ত পাওয়া গেছে এবার।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০১৯
এডি/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa