[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৫, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

কটকা ট্রাজেডি স্মরণে খুবিতে শোক দিবস

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৩-১৩ ৬:০৬:৫২ এএম
কটকা ট্রাজেডি স্মরণে খুবিতে শোকর‌্যালি

কটকা ট্রাজেডি স্মরণে খুবিতে শোকর‌্যালি

খুলনা: ২০০৪ সালের ১৩ মার্চ সুন্দরবনের কটকায় সফরে গিয়ে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপত্য ডিসিপ্লিনের নয়জন এবং বুয়েটের দু’জনসহ মোট ১১জন শিক্ষার্থী সমুদ্রগর্ভে নিমজ্জিত হয়ে মারা যান। সেই থেকে প্রতিবছর এ দিনে কটকা ট্রাজেডি স্মরণে শোক দিবস হিসেবে পালন করে আসছে। 

মঙ্গলবার (১৩ মার্চ) বেদনাবিধুর পরিবেশে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে (খুবি) দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে দিবসটি পালন করা হচ্ছে। 

এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসকে সাজানো হয় শোকাবহ সাজে। ক্যাম্পাসের প্রধান ফটক থেকে শুরু করে শহীদ মিনার চত্বর হয়ে কটকা স্মৃতি স্তম্ভ পর্যন্ত প্রায় আধা কিলোমিটার সড়কের দু’পাশের সারিবদ্ধ গাছে কালো কাপড় টানিয়ে তার ওপর শহীদ শিক্ষার্থীদের নাম কাঠের ওপর খোঁদাই করে লিখে শোকের আবহ তৈরি করা হয়। 

সকাল সাড়ে ১০টায় কালোব্যাজ ধারণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন প্রশাসন ভবনের সামনে থেকে শোকর‌্যালি শুরু হয়ে কটকা স্মৃতিস্তম্ভে পৌঁছায়। শোকর‌্যালিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার, বিভিন্ন স্কুলের ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত), ডিসিপ্লিন প্রধান, ছাত্র বিষয়ক পরিচালক, প্রভোস্ট ও বিভাগীয় প্রধানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী অংশ নেন।

পরে কটকা স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণের আগে নিহতদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এর পরপরই কটকা স্মৃতিস্তম্ভে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে প্রথমে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন।

তারপর পর্যায়ক্রমে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ, খানজাহান আলী হল, অপরাজিতা হল, খান বাহাদুর আহছানউল্লা হল, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেচ্ছা মুজিব হল, স্থাপত্য ডিসিপ্লিনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ডিসিপ্লিন, আইইআর, ছাত্রদের সংগঠন ছায়াবৃত্ত, চেতনা ৭১ ও নৃ-নাট্যের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়।

শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণের পর কটকা স্মৃতিস্তম্ভের অদূরে চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের সভাপতি প্রফেসর ড. অনির্বাণ মোস্তফা। 

দিনের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- মসজিদ ও অন্যান্য উপাসনালয়ে দোয়া মাহফিল-প্রার্থনা, বাদ যোহর এতিমদের সঙ্গ মধ্যাহ্ন ভোজ, বিকেল সাড়ে ৫টায় কটকা স্মৃতিসৌধে শোক সভা ও স্মৃতিচারণ। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৬ ঘণ্টা, মার্চ ১৪, ২০১৮
এমআরএম/জিপি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa