bangla news

শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তনে দেশের উন্নয়ন হবে

|
আপডেট: ২০১৪-০৫-০৪ ১১:৪৭:০০ এএম
আমির হোসেন আমু / ছবি : ফাইল ফটো

আমির হোসেন আমু / ছবি : ফাইল ফটো

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে শিক্ষা খাতে নজর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে দেশকে এগিয়ে নেওয়া হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ঢাকা: শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে শিক্ষা খাতে নজর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে দেশকে এগিয়ে নেওয়া হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

রোববার সাড়ে আটটায় রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ মিলনায়তনে কৃতি ছাত্র-ছাত্রী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

বাংলাদেশ ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

তিনি বলেন, ডিজিটাল শব্দটি ব্যবহারের পরে কেউ কেউ রসিকতা করেছিলেন। অথচ এখন ডিজিটাল সুযোগ-সুবিধা দেশের ইউনিয়ন পর্যায়েও মানুষ ভোগ করছে। শিক্ষা ব্যবস্থাকেও ডিজিটালাইজড করা হয়েছে। মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপন করা হয়েছে।

বর্তমান সরকারের গত মেয়াদে শিক্ষানীতি প্রণয়নের পরে এক শ্রেণির মানুষ মাদ্রাসা শিক্ষাকে ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে বলে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছিলেন। অথচ শিক্ষানীতি প্রণয়নে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, সচিব হওয়ার সুযোগ পেয়েছে। শিক্ষার দ্বার সবার জন্য উন্মুক্ত করতে উপবৃত্তির ব্যবস্থা করা হয়েছে, ৯ম শ্রেণী পর্যন্ত বিনামূল্যে শিক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শিক্ষাকে এগিয়ে নিতে শিক্ষার ভিত্তি ৪০ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করেছিলেন। দেশকে এগিয়ে নেওয়ার ধারাবাহিকতায় তার সুযোগ্য কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ৩৭ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে জাতীয়করণ করেছেন।

ঢাকা-৬ আসনের সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, জান-মালের নিরাপত্তা দিতে না পারলে দেশকে এগিয়ে নেওয়া সম্ভব হবে না। একটি চক্র দেশে অস্বাভাবিক অবস্থার সৃষ্টি করেছে। অপহরণ, ইভটিজিং আতঙ্কে অভিভাবকরা এখন সন্তানদের নিয়ে স্কুলে যান। এ অবস্থা কাটিয়ে উঠতে স্কুলের সামনে সাদা পোশাক পরিহিত আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের দৃষ্টি দেওয়া এবং এই চক্রের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।

ব্যবসায়ীদের সংগঠন এফবিসিসিআই’র সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ বলেন, সরকার যখন শিক্ষাকে প্রসারিত করতে চাইছে তখন ব্যবসায়ীদের দায়িত্ব সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া। আমাদের সাড়ে চার হাজার অ্যাসোসিয়েশন রয়েছে। অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যদের শিক্ষা বিস্তারে একযোগে কাজ করার জন্য এ সময় আহ্বান জানান তিনি।

এফবিসিসিআই’র সহ-সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন বলেন, স্বাধীনতার পরে আওয়ামী লীগ সরকার দেশ পরিচালনার বেশি সময় পায়নি। গত ছয় বছরে শিক্ষা খাতে যে অগ্রগতি হয়েছে তা বিশ্বের কম দেশেই দেখা যায়। কেবল শিক্ষা খাতেই নয় বর্তমানে প্রতিটি সূচকই এগিয়েছে দেখা যাচ্ছে।

আলোচনা শেষে কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে সন্মাননা পদক তুলে দেন প্রধান অতিথি।

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান মীর নিজাম উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম, বিবিএস কেবলস’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী আবু নোমান হাওলাদার, সুপার সাইন কেবলস’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিপ্লব চান দুলাল প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৮ ঘণ্টা, মে ০৪, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2014-05-04 11:47:00