ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১১ মহররম ১৪৪৬

শিক্ষা

‘ঝুলন্ত রায়’ মানেন না কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৪০ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০২৪
‘ঝুলন্ত রায়’ মানেন না কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীরা

ঢাকা: সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা বাতিলের দাবিতে রাজধানীর কয়েকটি স্পটের ন্যায় আগারগাঁও অবরোধ করে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা। ফলে মিরপুর থেকে বিজয় সরণি ও আগারগাঁও থেকে শ্যামলী সড়কে যানবাহন চলাচল করছে না।

 

এদিকে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করে জারি করা পরিপত্র অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের ওপর স্থিতাবস্থার (স্ট্যাটাসকো) ফলে আপাতত কোটা বাতিল করে দেওয়া পরিপত্র বহাল থাকবে।

হাইকোর্টের রায়ের ওপর স্থিতাবস্থা থাকার বিষয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলছেন, কোটা বাতিলে হাইকোর্টের ঝুলন্ত রায় মানি না। আমরা স্থায়ী সমাধান চাই।  

বুধবার (১০ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১ টার পরে রাজধানীর আগারগাঁও চার রাস্তার মোড়ে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীরা অবস্থান নেন। সেখানে তারা গান ও স্লোগানে বিক্ষোভ করেন। এছাড়া মেট্রোরেলের পিলারগুলো ব্যবহার করে রাস্তা জুড়ে লম্বালম্বি দড়ি টানিয়ে দেন তারা।  

জানা যায়, আন্দোলনকারীরা অধিকাংশ শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এছাড়াও আশপাশ এলাকার বিভিন্ন কলেজ ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও উপস্থিত হয়েছেন।

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, কৃষি অনুষদ চতুর্থ বর্ষের ছাত্র আশিক আহমেদ বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের এক দফা দাবি। প্রতিবন্ধী ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী বাদে সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে সব কোট বাদ দিতে হবে। কোটা বাতিলে হাইকোর্টের ঝুলন্ত রায় মানি না। আমরা স্থায়ী সমাধান চাই।  

তিনি আরও বলেন, নির্দিষ্ট একটি ট্রাইবুনাল গঠন করে পুরোপুরি একটি আইন পাশ করতে হবে। নইলে আমরা রাজপথে আন্দোলন করেই যাব।  

এদিকে আগারগাঁও অবরোধ হওয়ার খবর পেয়ে মিরপুর থেকে মতিঝিল ও যাত্রাবাড়ীগামী বাসগুলো মিরপুর ১০ থেকেই ঘুরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। অনেক বাস মিরপুর-১২ এর স্ট্যান্ড থেকেই ছাড়ছে না। এতে প্রত্যেকটি মোড়ে যাত্রীরা বাস সংকটের কারণে দীর্ঘ সময় ধরে ভোগান্তিতে পড়েছেন।

তবে আগারগাঁও মেট্রোরেল স্টেশন চালু রয়েছে। অনেক সাধারণ মানুষ হেঁটে এসে আগারগাঁও থেকে চড়ছেন।

আরও পড়ুন>> স্থিতাবস্থার রায়ে আশাহত আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩১ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০২৪
এমএমআই/এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।