bangla news
দশ বোর্ডের মূল্যায়ন

ভালোর দৌড়ে মফস্বলের প্রতিষ্ঠানগুলো

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০৭-১৮ ১০:৫২:১৪ এএম

দেশের দশ বোর্ডের ২০০টি সেরা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ঢাকা বোর্ডে মফস্বলের প্রতিষ্ঠান স্থান না পেলেও অন্যান্য বোর্ডে ৬৪টি প্রতিষ্ঠান সেরাদের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে। সার্বিক ফলাফলে দেখা গেছে, এবারও মফস্বলের প্রতিষ্ঠানগুলো ভালো করেছে।

ঢাকা: দেশের দশ বোর্ডের ২০০টি সেরা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ঢাকা বোর্ডে মফস্বলের প্রতিষ্ঠান স্থান না পেলেও অন্যান্য বোর্ডে ৬৪টি প্রতিষ্ঠান সেরাদের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে। সার্বিক ফলাফলে দেখা গেছে, এবারও মফস্বলের প্রতিষ্ঠানগুলো ভালো করেছে।

বুধবার সারাদেশে একযোগে উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়। গত বছর ১০ বোর্ডের ২০০টি সেরা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শহরের বাইরের ৬৫টি স্থান করে নিয়েছিল।

মফস্বলের সবচেয়ে ভালো ফল করেছে বরিশাল বোর্ড। এখানে জেলা শহরের বাইরে ১২টি উপজেলার প্রতিষ্ঠান শীর্ষস্থান অর্জন করেছে। এরমধ্যে- বরিশাল গৌরনদী উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের নাজিমুদ্দিন কলেজে ১৪৬ জনের ১৪৫ জন পাস এবং জিপিএ-৫ ৩২ জন, আগাইলঝরা শহীদ আব্দুর রব শেরনিয়াবাত ডিগ্রি কলেজে ৪৫৩ জনের ৩৮২ পাস ও জিপিএ-৫ ১৮, ভোলার দৌলতখান আবু আব্দুল্লাহ কলেজে ৩৫৬ জনের ৩২৬ পাস এবং ১৬ জন জিপিএ-৫, পটুয়াখালী গলাচিপা ডিগ্রি কলেজে ৪১৬ জনের ৩৪৮ পাস এবং জিপিএ-৫ ২৯ জন, ভোলার চর ফ্যাশন কলেজে ৪৭৭ জনের ৩৮৭ পাস ও ২৬ জন জিপিএ-৫, বরিশাল বাবুগঞ্জ কলেজে ৩৬৬ জনের ৩১৯ জন পাস এবং জিপিএ-৫ ১৫ জন, উজিরপুর বিএন কলেজে ১৮৫ জনের ১৭৬ জন পাস এবং জিপিএ-৫ ২৮ জন, বরগুনা পাথরঘাটা ফজলুল হক কলেজে ২৯০ জনের ২৭৫ পাস এবং জিপিএ-৫ ১৩ জন, বরিশালের গৌরনন্দীর মাহিলারা ডিগ্রি কলেজে ৩৭৬ জনের ৩০২ জন পাস ও ২৬ জন জিপিএ-৫, উজিরপুর ধামুরা ডিগ্রি কলেজে ২৩৮ জনের ২১৬ জন পাস ও ১৯ জন জিপিএ-৫, পিরোজপুর নাজিরপুর গোষাহাটি মহাবিদ্যালয়ে ৮৯ জনের ৮৮ পাস ও জিপিএ-৫ ৮ জন এবং নাজিরপুর শহীদ জিয়া কলেজে ২৯০ জনের ২৫৬ জন পাস ও ৭ জিপিএ-৫ পেয়েছে।

রাজশাহীতে উল্লাপাড়ার সায়েন্স কলেজ ৪৭৪ জনের ৪৫৪ জন পাস ও ১১৪ জন জিপিএ-৫, পাবনা বেড়া উপজেলার আলহেরা একাডেমি থেকে ১৮০ জনের ১৭৮ জন পাস এবং জিপি৫ ৬৯ জন এবং ইশ্বরদীর মহিলা কলেজে ৫২৭ জনের ৪৪৬ জন পাস এবং জিপিএ৫ পেয়েছে ৬০ জন।

কুমিল্লার বুড়িচংয়ের সোনারবাংলা কলেজে ২৬৯ জনের ২৬৮ জন পাস ও ৬০ জন জিপিএ৫, হাজিগঞ্জ মডেল কলেজে ৬৪০ জনের ৬০২ জন পাস ও ৬৭ জন জিপিএ৫, মুরাদনগর আব্দুল মজিদ কলেজে ৮৮০ জনের ৭৩৭ জন পাস ও ৬০ জন জিপিএ৫, হাজিগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে ৫০১ জনের ৪৫৫ জন পাস ও ৩৪ জন জিপিএ-৫, ব্রাহ্মণপাড়া মোশাররফ হোসেন খান কলেজে ২২০ জনের ২০৪ জন পাস ও ১৯ জন জিপিএ৫, বুড়িচংয়ের আব্দুল মতিন খসরু কলেজে ৩০২ জনের ২৮৫ জন পাস ও ২৩ জন জিপিএ৫ পেয়েছে।

যশোরের ঝিকরাগাছা উপজেলার শেখ আকিজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে ১০৪ জনে সকলেই পাস ও জিপিএ৫ পেয়েছে ৫১ জন, শর্শার আতিকুদ্দিন কলেজে ৫০০ জনের ৪৯১ জন পাস ও জিপিএ৫ পেয়েছে ৪৯ জন, মাগুরার বিহারিলাল শিকদার মহাবিদ্যালয়ে ২৬৯ জনের ২৫৯ জন পাস ও জিপিএ৫ পেয়েছে ৫১ জন, ঝিনাইদহের মহেশপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজে ৪৭৩ জনের ৩৯২ জন পাস ও জিপিএ৫ পেয়েছে ২৮ জন।

চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিভার্সিটি স্কুল অ্যান্ড কলেজে ১২১ জনের সকলেই পাস ও ৩৬ জন জিপিএ৫, আনোয়ারার ইউরিয়া ফার্টিলাইজার কলেজে ৬৬ জনের সকলেই পাস ও ২০ জন জিপিএ৫ পেয়েছে।

সিলেট শ্রীমঙ্গলের বার্ডস রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজে ৯৪ জনের ৯২ জন পাস ও ৩৪ জন জিপিএ৫, মৌলভীবাজার বড়লেখা তাইবুন্নেসা একাডেমি কলেজে ৬৬১ জনের ৬২২ জন পাস ও জিপিএ৫ পেয়েছে ৩২, কমলগঞ্জ সাজু মেমোরিয়াল কলেজে ৪৮৩ জনের ৪৪০ জন পাস ও ১৬ জন জিপিএ৫, হবিগঞ্জ বানিয়ারচরের শচীন্দ্র কলেজে ৬০৭ জনের ৫১৫ জন পাস ও ৯ জন জিপিএ৫, সুনামগঞ্জ ধীরাল কলেজে ৪৯৫ জনের ৪৩৭ জন পাস ও ১১ জন জিপিএ৫ পেয়েছে।   

দিনাজপুরে ঠাকুরগাঁও কলেজে ৮৭০ জনের ৭৫০ জন পাস ও ১৬৭ জন জিপিএ৫, নীলফামারীর সান ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজে ১৯৩ জনের সকলেই পাস ও জিপিএ৫ পেয়েছে ৩৭ জন, লালমনিরহাট হাতিবান্ধা আলিমুদ্দিন কলেজে ৫৬৭ জনের ৪৭২ জন পাস ও ৪৮ জন জিপিএ৫, ঠাকুরগাঁও পীরগঞ্জের সরকারী কলেজে ৭৭৭ জনের ৬৪৬ জন পাস ও ৫৭ জন জিপিএ৫ এবং দিনাজপুর বীরগঞ্জ কলেজে ৮০৭ জনের ৬৫৮ জন পাস ও জিপিএ৫ পেয়েছে ৭৯ জন।

মাদ্রাসা বোর্ডে গাজীপুর টঙ্গী তামিরুল মিল্লাত কামিল মাদ্রাসায় ৪২৮ জনের ৪২৫ জন পাস ও জিপিএ৫ ২০৭ জন, চট্টগ্রামের চন্দনইশ জামিয়া আহমেদিয়া কামিল মাদ্রাসায় ৩২৭ জনের ৩২৪ জন পাস ও  ১৩৪ জন জিপিএ৫, খুলনা সোনাডাঙ্গা দারুল কোরআন সিদ্দিকা কামিল মাদ্রাসায় ১২৪ জনের সকলেই পাসও ৬৬ জন জিপিএ৫, পিরোজপুর নাসিরাবাদ আহসানিয়া দারুস সুন্ন্ত কামিল মাদ্রাসায় ১৩৯ জনের ১৩৮ জন পাস ও ৫৬ জন জিপিএ৫, কুমিল্লার বুড়িচংয়ের কেরামতিয়া ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় ৪৫ জনের ১ জন ফেল ও ২৩ জন জিপিএ৫, লাকসামের নাজিরিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় ৪৪ জনের সকলেই পাস ও ১৯ জন জিপিএ৫, চট্টগ্রাম চাটগাওয়ের মজিদিয়া ইসলামিয়া আলীম মাদ্রাসায় ৯৩ জনের ১ জন ফেল এবং ৩৪ জন জিপিএ৫, ডাবলমুড়িং বাইতুস শরীফ আইডিয়াল কামিল মাদ্রাসায় ২২৪ জনের ২১৬ জন পাস ও ৬৭ জিপিএ৫ পেয়েছে।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ১৮টি
চাঁদপুর হাজীগঞ্জ মডেল কলেজে ২১২ জনের ২০৮ জন পাস ও ৭২ জন জিপিএ৫, রাজশাহীর বাঘা মহিলা বাণিজ্যিক কলেজে ৭১ জনের ১ জন ফেল ও ২৮ জন জিপিএ-৫, রংপুর তারাগঞ্জ কারিগরি অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে ১৫৭ জনের ১৫৩ জন পাস ও ৩৯ জন জিপিএ-৫,  খুলনা রূপসা এসজিসি টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে ১২৮ জনের ১২৬ জন পাস ও জিপিএ-৫ ৩৪, কুমিল্লার বুড়িচংয়ের ফজলুর রহমান ম্যামোরিয়াল কলেজ অব টেকনোলজিতে ৮৩ জনের ১ জন ফেল ও ২০ জন জিপিএ-৫, বগুড়া সোনাতলা বয়রা কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজে ১৮৮ জনের ১৭৯ জন পাস ও ৩৬ জন জিপিএ-৫, বরিশাল বাকীগঞ্জ আতাহার উদ্দিন হাওলাদার টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে ২০০ জনের ১৮৬ জন পাস ও ৩৫ জন জিপিএ-৫, কিশোরগঞ্জ কটিয়াদি মুন্সি আব্দুল হাকিম টেকনিক্যাল কলেজে ৫৮ জনের সকলেই পাস ও ২৩ জন জিপিএ-৫, ময়মনসিংহ ইশ্বরগঞ্জের আলীনগর টেকনিক্যাল অ্যান্ড কমার্শিয়াল কলেজে ২০১ জনের ১৯০ জন পাস ও ১৮ জন জিপিএ-৫, বগুড়া মাঝিরা কামরুদ্দিন ইসলামিয়া টেকনিক্যাল কলেজে ৫৬ জনের ১ জন ফেল ও ১০ জন জিপিএ-৫, টাঙ্গাইল বাশাইল এমদাদ হামিদা ডিগ্রি কলেজে ৫০ জনের সকজলেই পাস ও ১১ জন জিপিএ-৫, নীলফামারি জলঢাকা বিজনেস ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউটে ২৬৯ জনের ২৬৬ জন পাস ও জিপিএ-৫ ৪ জন , যশোর কেশবপুর আবু শরাফ সাদিক টেকনিক্যাল অ্যান্ড কমার্স কলেজ ১৮৩ জনের ১৮১ জন পাস ও ১৬ জন জিপিএ-৫, কুড়িগ্রাম নাগেশ্বরী টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে ১১৩ জনেবর ১০৮ জন পাস ও ১৭ জন জিপিএ-৫, পটুয়াখালী বাউফল ইয়াকুব শরীফ ডিগ্রি কলেজে ৮৩ জনের ২ জন ফেল ও ১০ জিপিএ-৫, কুমিল্লা চান্দিনা আবেদা নুর বিজনেস ম্যানেজম্যান্ট ইনন্টিটিউটে ৬১ জনের সকলেই পাস ও ১২ জন জিপিএ-৫, নওগাঁ পোরশা টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে ৫৭ জনের সকলেই পাস ও ১০ জন জিপিএ-৫, বগুড়া সোনাতলা বয়রা টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে ১৮৫ জনের ১৭৫ জন পাস ও ৩০ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে।  

মফস্বলের প্রতিষ্ঠানের ভালো ফলের কথা উল্লেখ করে আন্তশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ফয়িমা খাতুন বাংলানিউজকে বলেন, “যেহেতু মানবিকের ফল ভালো, সেহেতু মফস্বলের ফল ভালো। এবার ঢাকা জেলাতেও গ্রামের প্রতিষ্ঠানের ফল ভালো হয়েছে।”

বাংলঅদেশ সময়: ২০৩২ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০১২
এমআইএইচ/সম্পাদনা: আহমেদ জুয়েল, অ্যাসিসট্যান্ট আউটপুট এডিটর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2012-07-18 10:52:14