bangla news

যবিপ্রবিতে প্রথম আন্তর্জাতিক কনফারেন্স নিয়ে তোড়জোড়

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০৭-১২ ৯:৪২:৪০ এএম

যশোরে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক কনফারেন্স আয়োজন নিয়ে চলছে জোর তোড়জোড়। ‘গ্রিন কেমিস্ট্রি ফর সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক এ কনফারেন্সটির আয়োজন করতে চলেছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি)।

যশোর: যশোরে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক কনফারেন্স আয়োজন নিয়ে চলছে জোর তোড়জোড়। ‘গ্রিন কেমিস্ট্রি ফর সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক এ কনফারেন্সটির আয়োজন করতে চলেছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি)।

আগামী ১৪ জুলাই যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি) ক্যাম্পাসে সেমিনারের উদ্বোধন করবেন যবিপ্রবি উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুস সাত্তার।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. এ আই মোস্তাফা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে যবিপ্রবির উপাচার্যের বাসভবনে এক মতবিনিময় সভায় আন্তর্জাতিক এই কনফারেন্সের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন ‘গ্রিন কেমিস্ট্রি ফর সাসটেইন্যাবল ডেভেলপমেন্ট কনফারেন্সের কর্মকর্তা ড. জাবেদ হোসেন খান।

তিনি জানান, ১৪ জুলাইয়ের এ কনফারেন্সে দেশ-বিদেশের অন্তত ১২০ শিক্ষক, গবেষক ও বিজ্ঞানী তাদের গবেষণা বিষয়ক প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন। এর মধ্যে জাপান, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও ভারতের ১১ জন এবং দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৩ শতাধিক শিক্ষক ও গবেষক অংশগ্রহণ করবেন।
 
অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে অন্যতম কয়েকজন হলেন- জাপানের ওয়াসেদা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. আটসুগি সুগিয়ামা, ইউনিভার্সিটি সেন্ট মালয়েশিয়ার প্রফেসর ড. ফারুক আদম, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. কল্যাণ কে মুখার্জি, এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেনের প্রফেসর ড. অশোক কেশরী প্রমুখ।
 
১৪ জুলাই সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হবে।

গবেষণার মাধ্যমে টেকসই ও পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি উদ্ভাবন এবং তার সঠিক প্রয়োগের মাধ্যমে বাংলাদেশ তথা বৈশ্বিক উন্নয়নকে টেকসই করার লক্ষ্যে এ কনফারেন্স আয়োজন করা হয়েছে বলে ড. জাবেদ জানান।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত যবিপ্রবির উপচার্য প্রফেসর ড. আব্দুস সাত্তার জানান, গ্রিন কেমিস্ট্রি বিষয়ে বাংলাদেশে এটিই প্রথম আন্তর্জাতিক কনফারেন্স।

এ কনফারেন্সের মাধ্যমে বর্তমান বিশ্বের গবেষণালব্ধ আধুনিক প্রযুক্তি সম্পর্কে যেমন ধারণা পাওয়া যাবে, পাশাপাশি দেশ-বিদেশের প্রথিতযশা বিজ্ঞানী ও প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যবিপ্রবির একটি সেতুবন্ধন রচিত হবে; যা আগামী দিনে গবেষণা ও বিজ্ঞান শিক্ষার উন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য সহায়ক হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৮ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০১২
সম্পাদনা: ওবায়দুল্লাহ সনি, নিউজরুম এডিটর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2012-07-12 09:42:40