bangla news

শিক্ষায় বাংলাদেশ যুগান্তকারী পরিবর্তন এনেছে : শিক্ষামন্ত্রী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০৬-২৯ ১০:৩০:৪৫ এএম

শিক্ষাখাতে জিডিপির ২২ দশমিক ৪ এবং জাতীয় বাজেটের ১১ শতাংশ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, “শিক্ষাক্ষেত্রে বাংলাদেশ যুগান্তকারী পরিবর্তন এনেছে।”

ঢাকা: শিক্ষাখাতে জিডিপির ২২ দশমিক ৪ এবং জাতীয় বাজেটের ১১ শতাংশ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, “শিক্ষাক্ষেত্রে বাংলাদেশ যুগান্তকারী পরিবর্তন এনেছে।”

ভারতের মুম্বাইয়ে ওয়ার্ল্ড এডুকেশন কংগ্রেস’র (ডব্লিউইসি) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। শুক্রবার বিকেলে শিক্ষামন্ত্রণালয়ের প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “জাতীয় শিক্ষানীতি প্রণয়ন করে দূরদর্শী দিকনির্দেশনা, পরপর তিন বছর ১ জানুয়ারি ৩ কোটি ১২ লাখ শিক্ষার্থীর মধ্যে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ, শিক্ষায় তথ্য প্রযুক্তির ব্যাপক ব্যবহার, প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের সবগুলো বইয়ের শিক্ষাক্রম যুগোপযোগী এবং পরীক্ষা-ফলপ্রকাশ-ভর্তি-নিয়োগসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে শৃঙ্খলায়  ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে।”

তিনি বলেন, “বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্বাধীন সরকার ২০২১ সালের মধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়ন করে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করার প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন।”

তিনি বলেন, “প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে এরইমধ্যে ছাত্রছাত্রী সংখ্যার সমতা নিশ্চিত করা সম্ভব হয়েছে।”

বাংলাদেশের স্বাক্ষরতার বিষয়ের সঙ্গে সঙ্গে কারিগরি, বৃত্তিমূলক ও উচ্চ শিক্ষার উন্নয়নের বিষয় বিবেচনায় আনার জন্য বিশ্বসম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান শিক্ষামন্ত্রী।

দি ওয়ার্ল্ড এডুকেশন কংগ্রেস (ডব্লিউইসি) শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য বাংলাদেশের শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদকে ডব্লিউইসি অ্যাওয়ার্ড-এর জন্য মনোনীত করেছে। শুক্রবার রাতে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে তাকে এ অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৫ ঘণ্টা, জুন ২৯, ২০১২
এসএমএ/সম্পাদনা: আবু হাসান শাহীন, নিউজরুম এডিটর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2012-06-29 10:30:45