ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪৩১, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

শিক্ষা

জাবির ৬ ফটকে তালা দিল ছাত্রদল

জাবি করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৩৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ১, ২০২৩
জাবির ৬ ফটকে তালা দিল ছাত্রদল

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়:  বিএনপির ডাকা তিনদিনের অবরোধ কর্মসূচির ২য় দিনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) প্রবেশের ছয়টি ফটকে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে শাখা ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা।

বুধবার (১ নভেম্বর)  সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকসহ, জয়বাংলা ফটক, বিশমাইল ফটক, মীর মোশাররফ হোসেন হল ফটকে তালা দিয়েছে ছাত্রদল।

এই চারটি ফটকই ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক সংলগ্ন।

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশের অন্য ফটকের মধ্যে আমবাগান ও ইসলামনগর এলাকা সংলগ্ন ফটকে তালা ঝুলিয়ে অবরোধ কর্মসূচি পালন করে তারা।

জানা যায়, পাঁচটি ফটকই অল্প কিছুক্ষণ তালাবদ্ধ অবস্থায় ছিল। কিন্তু আমবাগান এলাকা সংলগ্ন ফটকটি প্রায় এক ঘণ্টা ধরে তালাবদ্ধ অবস্থায় ছিল।

পরে ফটকের তালাগুলো ভেঙে যাতায়াত ব্যবস্থার সুযোগ তৈরি করে দেন ফটক সংশ্লিষ্ট থাকা নিরাপত্তারক্ষীরা।

তালা দেওয়ার কাজ স্বীকার করে ছাত্রদল নেতা নাইমুল হাসান কৌশিক বলেন, সরকার যত বেশি বাধা ও হামলা-মামলা দেবে, সরকারের ও তাদের সাঙ্গপাঙ্গদের পতন ততো ভয়ংকর হবে। আমরা সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত এই রাজপথেই মোকাবিলা করব। আজকের এই কর্মসূচির মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগকে হুঁশিয়ার করে বলতে চাই, ক্যাম্পাসে টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসা, ফাও খাওয়া বন্ধ করে শিক্ষার সুন্দর পরিবেশ বজায় রাখতে হবে এবং দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে তারা তাদের বিগত দিনের অন্যায়ের জন্য জাতির কাছে ক্ষমা চেয়ে দেশের মানুষের এই আন্দোলনে পাশে থেকে তাদের কৃতকর্মের কিছুটা প্রায়শ্চিত্ত করবে। অন্যথায় তাদের রাজপথে সমুচিত জবাব দেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মওদুদ আহমেদ বলেন, ব্যক্তিগত কাজেই সকালে বের হয়েছিলাম। মীর মোশাররফ হোসেন হলের ফটক দিয়ে বের হওয়ার সময় দেখি তালাবদ্ধ। পরে প্রধান ফটকে এসে দেখি সেখানেও তালা দেওয়া হয়েছে ও ছাত্রদলের ব্যানার ঝুলছে। তবে কারা তালা লাগিয়েছে আমাদের চোখে পড়েনি। আমি দ্রুত তালা ভেঙে ফেলতে বলেছি। কারণ এরপরই বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসগুলো প্রবেশ করবে, শিক্ষার্থীরা ক্লাসে আসবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩২ ঘণ্টা, নভেম্বর ০১, ২০২৩
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।