ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

শিক্ষা

খুলনা খান বাহাদুর আহ্ছানউল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভিসি মাহমুদ আলম

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৪ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০২৩
খুলনা খান বাহাদুর আহ্ছানউল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভিসি মাহমুদ আলম

খুলনা: খুলনা খান বাহাদুর আহ্ছানউল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর হিসেবে প্রফেসর ড. মো. মাহমুদ আলম যোগদান করেছেন। বুধবার (১৬ আগস্ট) তিনি কর্মস্থলে যোগ দেন।

 

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন ২০১০ এর (৩১)১ ধারা অনুযায়ী মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মো. সাহাবুদ্দিন চার বছর মেয়াদে তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর নিযুক্ত করেছেন।

তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভাইস-চ্যান্সেলর হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্বভার গ্রহণ করায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজ, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ নবনিযুক্ত ভাইস-চ্যান্সেলরকে আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন, নবনিযুক্ত ভাইস-চ্যান্সেলর তার একাডেমিক প্রজ্ঞা ও সৃজনশীল চিন্তাধারা দ্বারা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক উন্নয়ন সাধন করবেন এবং তার নিরলস প্রচেষ্টায় বিশ্ববিদ্যালয় দ্রুত সামনের দিকে এগিয়ে যাবে, পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত হবে।  

প্রফেসর ড. মো. মাহমুদ আলমকে ভাইস-চ্যান্সেলর নিযুক্ত করায় তিনি ও বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও মহামান্য রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং শিক্ষামন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

নবনিযুক্ত ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. মাহমুদ আলমের সংক্ষিপ্ত জীবনী:
প্রফেসর ড. মো. মাহমুদ আলম ১৯৬৩ সালের আগস্ট মাসে বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার পাতুনিয়াকাঠি গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতা ১৯৭১ সালের ২০ মে যুদ্ধ চলাকালীন পাক-হানাদার বাহিনীর হাতে গুরুতর আহত হয়েছিলেন। তার সহধর্মিনী দেলোয়ার বেগম খুলনা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা। তিনি ১৯৮৪ ও ১৯৮৬ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণিত বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) ও ফলিত গণিত বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৯৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফলিত গণিত বিষয়ে প্রথম পিএইচডি এবং ১৯৯৯ সালে জাপানের ওকাইয়ামা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে দ্বিতীয় পিএইচডি ডিগ্রি  অর্জন করেন এবং একই বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভাগ থেকে ২০০৬ সালে পোস্টডক্টরেট করেন। তিনি ১৯৮৭ সালে সাবেক খুলনা বিআইটি (বর্তমান কুয়েট) এ শিক্ষকতার মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন, এরপর ২০০০ সালে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে গণিত ডিসিপ্লিনে সহকারী অধ্যাপক পদে যোগদান করেন, ২০০৩ সালে সহযোগী অধ্যাপক, ২০০৭ সাল হতে অধ্যাপক পদে দায়িত্বরত আছেন। বর্ণাঢ্য কর্মজীবনে তিনি সফলতার সাথে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য, বোর্ড অব এ্যাডভ্যান্স স্টাডিজ, স্কুলের নির্বাহী কমিটির সদস্য এবং বিভাগীয় প্রধানসহ একাডেমিক ও প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করেছেন। এ পর্যন্ত তার ১৭৫টি গবেষণা নিবন্ধ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। দেশি ও বিদেশি সংস্থার অর্থায়নে ৩টি গবেষণা প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছেন তিনি। ইতোমধ্যে তার তত্ত্বাবধানে ৩ জন গবেষক পিএইচডি ও ৪ জন এমফিল ডিগ্রী অর্জন করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫২ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০২৩
এমআরএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

শিক্ষা এর সর্বশেষ