ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ চৈত্র ১৪৩০, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০২ শাওয়াল ১৪৪৫

শিক্ষা

বাবার লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দেওয়া সানজিদা পাস করেছে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৩
বাবার লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দেওয়া সানজিদা পাস করেছে

টাঙ্গাইল: বাবার লাশ বাড়িতে রেখে এইচএসসি পরীক্ষা দেওয়া টাঙ্গাইলের সেই সানজিদা আক্তার এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। বুধবার (৮ ফেব্রুয়ারি) ফলাফল প্রকাশ হলে দেখা যায়, সে ৪.৭৫ পেয়েছে।

সানজিদা সদর উপজেলার দাইন্যা ইউনিয়নের বাইমাইল গ্রামের শামীম আল মামুনের মেয়ে। সে টাঙ্গাইল শহরের সরকারি কুমুদিনী কলেজের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এবার এইচএসসি পাস করেছে।  

গত ১২ নভেম্বর রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থা মৃত্যুবরণ করেন সানজিদার বাবা শামীম আল মামুন। বাবার লাশ বাড়িতে রেখে পরদিন (১৩ নভেম্বর) এইচএসসি পরীক্ষার ইংরেজি দ্বিতীয় পর্বের পরীক্ষা দেয় সানজিদা।  

সানজিদা আক্তারের বড় ভাই ইমরান হোসেন বলেন, গত ১৬ সেপ্টেম্বর বাবা পাকস্থলির সমস্যা নিয়ে টাঙ্গাইল শহরের একটি ক্লিনিকে ৪দিন চিকিৎসা নেন। পরবর্তীতে কিডনিতে সমস্যা দেখা দেওয়ায় তাকে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১২ নভেম্বর রাতে বাব মারা যান। সকালে বাবার লাশ বাড়িতে আনা হয়। বাবার লাশ রেখেই ছোট বোন এইচএসসি পরীক্ষা দিতে যায়।  

এইচএসসি পরীক্ষার্থী সানজিদা আক্তার বলেন, আমি বাবাকে খুব সম্মান করতাম ও ভালোবাসতাম। তার নির্দেশনা মোতাবেক মনোযোগ দিয়ে লেখাপড়া করতাম। আমার বাবার জন্য সবার কাছে দোয়া চাই।

ডাক্তার হতে চায় সানজিদা। এজন্য সবারা দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেছে সে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০২৩
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।