ঢাকা, বুধবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯ রজব ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

প্রবাসীরাও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারবেন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০২২
প্রবাসীরাও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারবেন

ঢাকা: ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ মোবাইল ফাইনান্সিংয়ের মাধ্যমে দেনদেন। দেশের এক প্রান্ত থেকে আরেকপ্রান্তে মিনিটেই টাকা পাঠানোর এ সুযোগ এতদিন দেশের মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিল।

এখন থেকে বিদেশে বসেও মোবাইল ফাইনান্সিংয়ের মাধ্যমে দেশে পরিজনের কাছে দ্রুত টাকা পাঠাতে পাববেন প্রবাসীরা।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) মোবাইলে আর্থিক সেবাদানকারী (এমএফএস) প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সরাসরি প্রবাসী আয় পাঠানোর সুযোগ দিয়ে সার্কুলার জারি বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা ও নীতি বিভাগ।

প্রবাসীরা এখন থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের লাইসেন্স প্রাপ্ত মোবাইল ফাইনান্সিং প্রতিষ্ঠান এমএফএসের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারবেন। সৌদি আরর, যুক্তরাষ্ট্র বা যেকোনো দেশ থেকে কোনো প্রবাসী তাৎক্ষণিকভাবে টাকা পাঠাতে পারবেন। এতোদিন বিদেশি কোনো ব্যাংকের মাধ্যমে রেমিট্যান্স এনে ওই অর্থ গ্রাহকের মনোনীত ব্যক্তির কাছে পৌঁছে দিত। এখন এমএফএস প্রতিষ্ঠানগুলো সরাসরি প্রবাসী আয় পাঠাতে পারবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, এখন থেকে লাইসেন্স প্রাপ্ত মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারেরা প্রবাসী আয় আনতে বিদেশস্থ অনলাইন পেমেন্ট গেটওয়ে সার্ভিস প্রোভাইডার, ব্যাংক, ডিজিটাল ওয়ালেট, কার্ড স্কিম ও অ্যাগ্রিগেটর পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হবে।

আগ্রহী মোবাইল ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস প্রোভাইডারদের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে আয় প্রত্যাবাসন সংক্রান্ত কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে অনুমোদন চেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকে আবেদন করতে হবে। সার্কুলার অনুযায়ী, বিদেশি প্রতিযোগীদের সঙ্গে স্থানীয় মোবাইল ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস প্রোভাভাইডারদের চুক্তিবদ্ধ হতে হবে। সহযোগী প্রতিষ্ঠানের হিসাবে বৈদেশিক মুদ্রা জমা হবে, যা প্রবাসীর মোবাইল ফাইনান্সিয়াল হিসাবে টাকায় জমা হবে।

মোবাইল ফাইনান্সিংয়ের মাধ্যমে অর্থ পাঠাতে বিদেশে কর্মরত প্রবাসীদের যথাযথ ই-কেওয়াইসি পরিপালন করে দেশের মোবাইল ব্যাংকিং বা এমএফএসে হিসাব খুলতে হবে।

এ টাকা লেনদেনে দেশীয় ব্যাংক মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারদের সেটেলমন্টে অ্যাকাউন্ট সুবিধা দেবে। ব্যাংকের বিদেশি নস্ট্রো হিসাবে অর্থ জমার পর ওই অর্থের সমপরিমাণ টাকা সেটেলমেন্ট হিসাবে জমা হবে।

মোবাইল ফাইনান্সিংয়ে এ ধরনের অর্থ দেনদেনের সুবিধা দেশের মধ্যে সিমাবদ্ধ ছিল। বিদেশে থেকে দ্রুত অর্থ পাঠাতে অবৈধ পন্থার আশ্রয় নিতেন অনেক প্রবাসী। এর ফলে মানি লন্ডারিং হতো। হুন্ডির ঘটনাও ঘটতো। বাংলাদেশ ব্যাংকের এই সার্কুলারের ফলে প্রবাসীরা বিকাশ, রকেট, এমক্যাশ, ইউক্যোশসহ লাইসেন্স প্রাপ্ত মোবাইল ফাইনান্সিয়ের মাধ্যমে দ্রুত এবং বৈধভাবে দেশে টাকা পাঠাতে পারবেন। এর ফলে অনানুষ্ঠানিকভাবে প্রবাসী আয় প্রত্যাবাসন বন্ধ করতে সহায়তা করবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০২২
জেডএ/এসআইএস
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa