ঢাকা, শনিবার, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

বিজিএমইএ'র ‘ক্রিয়েট' প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২১৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ৬, ২০২২
বিজিএমইএ'র ‘ক্রিয়েট' প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু

ঢাকা: বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান বলেছেন, বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের অন্যতম অগ্রাধিকার টেকসই উন্নয়ন, যেখানে ব্যবসায়িক মডেলগুলোতে সার্কুলারিটি অন্তর্ভুক্ত করার জন্য অব্যাহত প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, বিজিএমইএ-এর কৌশলগত রূপকল্প-২০৩০ এর মূলে রয়েছে সার্কুলারিটি এবং আমরা এসডিজি-১২ এর সাথে সামঞ্জস্য রেখে টেকসই উপাদানের মিশ্রণ ৫০ শতাংশ বৃদ্ধি করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

বৃহস্পতিবার (০৬ অক্টোবর) ঢাকায় সার্কুলার ইকোনমি ইন বাংলাদেশ অ্যাপারেল ইন্ডাস্ট্রি (ক্রিয়েট) প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বিজিএমইএ সভাপতি।

আহসানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি এবং অ্যালবার্গ ইউনিভার্সিটি (এএইউ) বিজনেস স্কুল যৌথভাবে ক্রিয়েট প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হলো পোশাক শিল্পের সাথে যুক্ত বৈশ্বিক পোশাক ভ্যালু চেইনে সার্কুলার ইকোনমিতে গমন বিষয়টি নিবিড়ভাবে পর্যক্ষেণ করা এবং এ ব্যাপারে কার্যকর নীতি প্রণয়ন করা।

পোশাক শিল্পে সার্কুলার ইকোনমি বিষয়ে সবচেয়ে বড় গবেষণা-ভিত্তিক, নীতি-উন্নয়ন প্রকল্প এটি। ক্রিয়েট-এর লক্ষ্য হলো জলবায়ু পরিবর্তন প্রশমন করা এবং বিশ্বব্যাপী ফ্যাশন শিল্পে সামাজিক ও অর্থনৈতিক টেকসই উন্নয়নে অবদান রাখা।

ক্রিয়েট প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণকারী ও প্রতিনিধিরা যোগ দেন। অংশগ্রহণকারীরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণের কনফারেন্স রুম থেকে অ্যালবার্গ ইউনিভার্সিটি বিজনেস স্কুলের সাথে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন, যেখানে অনুষ্ঠানটি আয়োজিত হয়েছিল।

বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান তার বক্তব্যে আরও বলেন, ক্রমবর্ধমান বৈশ্বিক চাহিদার সাথে সামঞ্জস্য রেখে বাংলাদেশের পোশাক শিল্প সার্কুলারিটির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। আমি আশা করি, এই ক্রিয়েট প্রকল্পটি আমাদের বৈশ্বিক ভ্যালু চেইন বুঝতে সহায়তা করবে এবং টেকসই উৎপাদন ও ভোগের উন্নয়নের জন্য বাজারভিত্তিক সমাধানগুলোর বিকাশ ঘটাবে।

তিনি বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের সক্ষমতা ও শক্তি তুলে ধরতে বিজিএমইএ-এর উদ্যোগে ১২-১৮ নভেম্বর, ২০২২ ঢাকায় অনুষ্ঠেয় ‘মেইড ইন বাংলাদেশ উইক‘-এ যোগদানের জন্য অনুষ্ঠানের অতিথি ও অংশগ্রহণকারীদের আমন্ত্রণ জানান।

অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য রাখেন প্রকল্প নেতা এএইউ বিজনেস স্কুলের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর মোহাম্মদ রানা।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৬, ২০২২
এমকে/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa