ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

বিআইসিসিতে দিনব্যাপী ‘ফুড অ্যান্ড কেমিক্যাল ল্যাব এক্সপো’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২২
বিআইসিসিতে দিনব্যাপী ‘ফুড অ্যান্ড কেমিক্যাল ল্যাব এক্সপো’ ছবি: জি এম মুজিবুর

ঢাকা: দেশে প্রথমবারের মতো আয়োজন করা হয়েছে ‘ফুড অ্যান্ড কেমিক্যাল ল্যাব এক্সপো ২০২২’। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) দিনব্যাপী চলছে এ আয়োজন।

এক্সপোর পর্দা নামবে সন্ধ্যা ৬টায়।

রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে এ এক্সপো উদ্বোধন করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধারণ চন্দ্র মজুমদার। খাদ্য মন্ত্রণালয়ের বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ ও মার্কিন কৃষি বিভাগ এ এক্সপোর আয়োজন করেছে। খাদ্য পণ্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বেগবান করতে সনদপ্রাপ্ত পরীক্ষাগারগুলোর ভূমিকা নিয়ে একটি বৈজ্ঞানিক আলোচনা পর্ব রয়েছে বিকেল ৩টায়।

এক্সপো এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, এক্সপোর ৪৪টি স্টলের মধ্যে ৩৮টিতে রয়েছে সরকারি-বেসরকারি পরীক্ষাগার ও ছয়টিতে রয়েছে যন্ত্রপাতি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান। এসবের মধ্যে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের স্টলে গেলে দেখা যাবে, বাসায় কীভাবে ফলমূল ও শাকসবজি ধৌত করতে হবে, ফলমূল ও শাকসবজির জন্য লবণ পানির মিশ্রণ তৈরির প্রণালী এবং কেমন পরিমাণ তাপমাত্রায় শাকসবজি রান্না করলে তা নিরাপদ থাকবে সেই বিষয়ে প্রদর্শিত হচ্ছে।

বাংলাদেশ অ্যাগ্রিকালচারাল রিসার্চ ইনস্টিটিউটের স্টলে গেলে দেখা যাবে, জৈব উপায়ে নিরাপদ ও পুষ্টি সমৃদ্ধ সবজি উৎপাদনের প্রক্রিয়া। ওই স্টলে আরও দেখা যাবে কীভাবে নিরাপদ সবজি উৎপাদন করা যায়, কীভাবে সবজি নিরাপদ হয়, বালাই বর্জন নেটে সবজির চাষ, সবজির নিরাপদ প্রক্রিয়াকরণ কার্যক্রমসহ নানা বিষয়।

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের উদ্ভিদ রোগ তথ্য বিভাগের স্টলে দেখা গেছে, ফলমূলের গাছে কীভাবে রোগ-ব্যাধি আক্রমণ করে, রোগ-ব্যাধির লক্ষণ এবং সেটি কীভাবে সারিয়ে তোলা যায় তার প্রক্রিয়া রয়েছে। বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের স্টলে দেখা গেছে, কৃত্রিম রং বর্জন করে কীভাবে খাবার রঙিন করা যায় তার প্রক্রিয়া।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের স্টলে দেখা গেছে, কোন কোন পোকামাকড় কৃষকের বন্ধু আর কোন কোন পোকামাকড় ক্ষতিকর তার প্রদর্শনী।

এছাড়া খাবার নিরাপদ করার পরীক্ষাগারে যেসব কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয় তার প্রদর্শনীয় চলছে। এছাড়া প্রাণ, ওফেন রিসার্চ ল্যাব, আইসিডিডিআরবি, প্রেসটিসাইড ল্যাবরেটরি, লাল তীর সীড লিমিটেড, এমএনটি সীড টেস্টিং, কোয়ালিটি কন্ট্রোল ল্যাবরেটরি, নেসলে বাংলাদেশ লিমিটেড, ওএমসি লিমিটেডসহ অনেক প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্য প্রদর্শনী করছে।

এক্সপো সম্পর্কে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল কাইউম বলেন, দেশের খাদ্য ও রাসায়নিক পণ্যের পরীক্ষাগার নেটওয়ার্কের সক্ষমতা তুলে ধরা, তাদের ওপর মানুষের আস্থা বাড়ানো এবং সবার জন্য নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা এ প্রদর্শনীর মূল লক্ষ্য। এর মাধ্যমে সরকারি-বেসরকারি পরীক্ষাগারগুলোর একটি কার্যক্রম নেটওয়ার্ক সৃষ্টি হবে যাতে তারা স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক ভোক্তাদের জন্য খাদ্যপণ্যের নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনায় আরও সক্রিয় ভূমিকা রাখতে পারে। খাদ্যপণ্যের নিরাপত্তা সম্পর্কিত প্রযুক্তির জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা সর্বোত্তম চর্চা ও আন্তর্জাতিক মানদণ্ডগুলো একে অপরকে জানানোর একটি চমৎকার প্ল্যাটফর্ম হবে এ প্রদর্শনী।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২২
এইচএমএস/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa