ঢাকা, শনিবার, ৭ কার্তিক ১৪২৮, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

বিপিবিএল নিয়ে এলো ‘মি. এক্সপার্ট সল্ট সেফ’

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৩ ঘণ্টা, জুলাই ৬, ২০২১
বিপিবিএল নিয়ে এলো ‘মি. এক্সপার্ট সল্ট সেফ’

ঢাকা: দেশের শীর্ষস্থানীয় পেইন্ট সমাধানদাতা প্রতিষ্ঠান বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড (বিপিবিএল), সম্প্রতি বাজারে নিয়ে এসেছে এর নতুন পণ্য ‘মি. এক্সপার্ট সল্ট সেফ’।  

ব্যতিক্রমী প্রযুক্তিতে তৈরি বিশেষ এই পণ্যটি লবণাক্ততার ফলে দেওয়ালে জন্মানো এফ্লোরেসেন্স গঠন প্রতিরোধ করবে এবং বাড়ির দেওয়ালকে রাখবে সুরক্ষিত ও সুন্দর।

 

এফ্লোরেসেন্স হচ্ছে জমা হওয়া লবণের সাদা রঙের স্ফটিক। দেওয়াল, মেঝে বা বিল্ডিংয়ের অন্য কোনো পৃষ্ঠে পানির উপস্থিতি থাকলে সেখানে এফ্লোরেসেন্স জমতে পারে।  

এফ্লোরেসেন্স গঠন প্রতিরোধ বা প্রতিকারে নিখুঁত সমাধান মি. এক্সপার্ট সল্ট সেফ।  

পণ্যটি দেওয়ালের স্তরের ভেতরে প্রবেশ করে এবং লবণকে পৃষ্ঠে আসতে বাধা দেয়। এভাবে, এটি ত্রুটিযুক্ত উপরিপৃষ্ঠ রোধের নিশ্চয়তা দেয় এবং প্লাস্টার ও কোটিংকে করে তোলে আরও দীর্ঘস্থায়ী।

এ ব্যাপারে বিপিবিএলের সেলস ও মার্কেটিংয়ের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার মো. মহসিন হাবিব চৌধুরী বলেন, বর্ষা মৌসুমে, আর্দ্রতা এবং স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়া একসঙ্গে আমাদের বাড়ির জন্য ক্ষতিকর হয়ে দাঁড়াতে পারে। বৃষ্টিপাত, ঘনীভবন, শিশিরকণা, আর্দ্র পরিবেশ এবং সিমেন্ট ট্রাওয়েলিংয়ের সময় ব্যবহৃত অতিরিক্ত পানি এফ্লোরেসেন্স গঠনে ভূমিকা রাখতে পারে।  

মি. এক্সপার্ট সল্ট সেফ এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে, যাতে এটি দেওয়ালে ব্যবহার করলে পানি জমে নোনা ধরা থেকে দেওয়াল রক্ষা পায়। প্লাস্টারওয়ার্ক থেকে পুরনো ইটের দেওয়াল, এটি যেকোনো ধরনের স্তরের জন্য উপযুক্ত। স্যাঁতসেঁতে, অবাঞ্চিত এবং অস্বাস্থ্যকর দেওয়াল নিয়ে যারা চিন্তায় আছেন, বিশেষত চলমান বৈশ্বিক মহামারিতে যখন স্বাস্থ্যকর ইন্টেরিয়রের প্রয়োজনীয়তা সবচেয়ে বেশি, তাদের জন্য সল্ট ওয়াশ সহায়ক হতে পারে।
 
রাসায়নিকভাবে সক্রিয় উপাদান না থাকায় মি. এক্সপার্ট সল্ট সেফ সার্ফেস প্রাইমার হিসেবে এফ্লোরেসেন্স প্রতিরোধে অত্যন্ত কার্যকর। সিমেন্টের পৃষ্ঠের জন্য এটি একটি শক্তিশালী প্রাইমার/সিলার হিসেবে কাজ করে।  

নোনা ধরা থাকুক বা না থাকুক, সল্ট সেফ পুরানো ও নতুন উভয় দেওয়ালে ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে, মূলত দেওয়ালের পৃষ্ঠে যখন সাদা খনিজ লবণগুলো দেখা যায়, এটি তখন ব্যবহারের পরামর্শ দেওয়া হয়।  

পানিবাহিত এই পণ্যটি এফ্লোরেসেন্স রোধ করতে বা কাটিয়ে উঠতে লবণকে নিষ্ক্রিয় করে ফেলতে পারে। তবে, স্যাঁতসেঁতে অবস্থা যখন বাড়তে থাকে, দেওয়ালের স্তরে লবণ তখন আরও বেড়ে যেতে পারে। এই ধরনের প্রতিকূল পরিস্থিতিতে মি. এক্সপার্ট সল্ট সেফ সন্তোষজনকভাবে কাজ নাও করতে পারে। সম্ভাব্য সর্বোচ্চ ফলাফল পেতে পণ্যটি সঠিক নির্দেশনা অনুসারে প্রয়োগ করতে হবে।  

এফ্লোরেসেন্সের উপস্থিতি প্রাণঘাতী না হলেও, এটি অতিরিক্ত আর্দ্রতা নির্দেশ করে। তাই ছত্রাক বাড়াতে বা চোখে না পড়া কাঠামোগত ক্ষতির মতো অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সম্মুখীন না হতে চাইলে এই ধরনের অসঙ্গতিতে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত।  

বার্জারের নতুন মি. এক্সপার্ট সল্ট সেফ এফ্লোরেসেন্স প্রতিরোধ করে এবং দেওয়ালের ওপরের স্তরের সংযুক্তি ও স্থায়িত্ব নিশ্চিত করে। পরিবারের সুস্বাস্থ্য নিয়ে চিন্তিত বাড়ির মালিকেরা মি. এক্সপার্ট সল্ট সেফ কিনতে অথবা এ সম্পর্কে আরও বিস্তারিত তথ্য জানতে নিকটস্থ বার্জার শো-রুমে যেতে পারেন অথবা ০৮০০০-১২৩৪৫৬ এই নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন।

মঙ্গলবার (৬ জুলাই) বিপিবিএল থেকে পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৭ ঘণ্টা, জুলাই ০৬, ২০২১
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa