ঢাকা, রবিবার, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

অপরিশোধিত স্বর্ণ আমদানির অনুমতি পাওয়ার যোগ্যতা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৫১ ঘণ্টা, জুলাই ২, ২০২১
অপরিশোধিত স্বর্ণ আমদানির অনুমতি পাওয়ার যোগ্যতা

ঢাকা: সরকার অনুমোদিত ব্যবসায়ী সংগঠনের বৈধ সদস্য প্রতিষ্ঠান বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়ে অপরিশোধিত স্বর্ণ আমদানি করতে পারবে। এজন্য স্বর্ণ পরিশোধনাগার, আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানের কার্যালয়ে ইন্টারনেট সংযোগসহ কম্পিউটার-ল্যাপটপ, টেলিফোন, মোবাইলসহ উন্নততর যুতসই নিরাপদ যোগাযোগ ব্যবস্থা থাকতে হবে।

এছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি শর্ত দিয়ে অপরিশোধিত স্বর্ণ আকরিক অথবা আংশিক পরিশোধিত স্বর্ণ আমদানিকারক হিসেবে অনুমতি ইস্যু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) এবিষয়ে একটি সার্কুলার জারি করে বৈদেশিক মূদ্রা লেনদেনে নিয়োজিত অনুমোদিত ডিলার ব্যাংকের কাছে পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এতে বলা হয়েছে, আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানকে স্বর্ণ পরিশোধনাগার প্রতিষ্ঠান হিসেবে কিংবা প্রতিষ্ঠার জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি পেতে হবে। বাংলাদেশি একক বা অংশীদারি প্রতিষ্ঠান কিংবা নিবন্ধিত লিমিটেড কোম্পানিকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের শর্তানুযায়ী নির্ধারিত স্থানে স্বর্ণ পরিশোধনাগার স্থাপনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহন করতে হবে।

আমদানিতব্য অপরিশোধিত স্বর্ণ আকরকি (ওরি) আংশিক পরিশোধিত স্বর্ণ (ডোরি) সংরক্ষরণের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা স্বর্ণ পরিশোধনাগারে থাকতে হবে।  আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত আর্থিক সংগতি (মূলধন-নীট সম্পদ, চলতি মূলধন প্রভৃতি) থাকতে হবে।

আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানের কার্যালয়ে ইন্টারনেট সংযোগসহ কম্পিউটার-ল্যাপটপ, টেলিফোন, মোবাইলসহ উন্নততর যুতসই নিরাপদ যোগাযোগ ব্যবস্থা থাকতে হবে। যার মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকে নিয়মিত রিপোর্ট দাখিল করা যায়।  আবেদনকারী প্রতিষ্ঠঅনকে দেশের প্রচলিত আইনের আওতায় সকল ধরণের লাইসেন্স, নিবন্ধন সনদপত্র হালনাগাদ থাকতে হবে। সরকার অনুমোদিত ব্যবসায়ী সংগঠনের বৈধ সদস্য হতে হবে।

আবেদনের সঙ্গে যেসব কাগপত্র জমা দিতে হবে।

স্বর্ণ পরিশোধনাগার প্রতিষ্ঠার জন্য বাণিজ্যমন্ত্রণালয়ের অনুমোদদেন কপি, হালনাগদ ট্রেড লাইসেন্স, টিআইএন সনদপত্র, মূসক  নিবন্ধন, বিআইএন সনদপত্র, সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী সংগঠনের সদস্যপদের কপি, আয়কর কর্তৃপক্ষের সর্বশেষ নিরূপিত আয়ের সার্টিফিকেট কপি বা আয়কর বিবরনী আদেশ এবং আইটি-১০(বি) এর কপিসহ আয়কর পরিশোধ সংক্রান্ত প্রত্যয়নপত্র, প্রতিষ্ঠানের আর্থিক স্বচ্ছলতা সর্ম্পকে তফসিলি ব্যাংকের সনদপত্রসহ ঋণ প্রতিবেদন (সিআইবি রিপোর্ট)।

এছাড়াও আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী ও ব্যবসায়িক কর্মকান্ডে নিয়োজিত ক্ষমতাপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের ছবিসহ জীবনবৃত্তান্ত। নিবন্ধিত লিমিটেড কোম্পানি হলে উক্ত কোম্পানির নিকবন্ধন সনদ, মোমেরেন্ডাম অব এসোসিয়েশন এবং আর্টিকেল অব এসোসিয়েশনের কপি।

আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানের মালিক-অংশীদারিত্ব-পরিচালকদের বিস্তারিত তথ্যসহ উপযুক্ততা ও যথার্থতা সর্ম্পকে পুলিশ ছাড়পত্র, আয়কর পরিশোধ প্রত্যয়নপত্র, স্বচ্ছলতার সনদপত্র এবং ঋণ প্রতিবেদন (সিআইবি রিপোর্ট) জমা দিতে হবে।

অপরিশোধিত স্বর্ণ আমদানির অনুমতির মেয়াদকাল হবে ৫ বছর। মেয়াদ পূর্তির তিনমাস আগে হালনাগাদ ট্রেড লাইসেন্সের কপি, আয়কর কর্তৃপক্ষের সর্বশেষ নিরূপিত আয়ের সার্টিফিকেট কপি বা আয়কর বিবরনী আদেশ এবং আইটি-১০(বি) এর কপিসহ আয়কর পরিশোধ সংক্রান্ত প্রত্যয়নপত্র, অনুমতি নবায়ন ফি বাবদ বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগের নামে ৫লাখ টাকার অফেরত যোগ্য পে-অর্ডারসহ দেশে প্রচলিত আইনের আওতায় আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রযোজ্য অন্যান্য সকল ধরণের লাইসেন্স-নিবন্ধন-সনদপত্র ইত্যাদির হালনাগাদ কপি জমা দিতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংক আবেদনকারী স্বর্ণ পরিশোধনাগার সরেজমিন পরিদর্শন করতে পারে। অনুমতিপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানকে পরিদর্শনের এবং কোনো প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন প্রদান বা প্রত্যাখানের ক্ষমতা বাংলাদেশ ব্যাংক সংরক্ষণ করে।

বাংলাদেশ সময়: ০১৫১ ঘণ্টা, জুলাই ০২, ২০২১
এসই/এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa