bangla news

‘চট্টগ্রামে পরিকল্পিতভাবে অ্যানথ্রাক্স আতঙ্ক ছড়ানো হচ্ছে’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-০৯-১৬ ৫:০৮:০৫ এএম

মুনাফালোভী একশ্রেণীর চক্রান্তকারী অ্যানথ্রাক্স আতঙ্ক ছড়িয়ে চট্টগ্রামের গরু ও চামড়ার বাজার নষ্ট করছে বলে অভিযোগ করেছেন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।

চট্টগ্রাম: মুনাফালোভী একশ্রেণীর চক্রান্তকারী অ্যানথ্রাক্স আতঙ্ক ছড়িয়ে চট্টগ্রামের গরু ও চামড়ার বাজার নষ্ট করছে বলে অভিযোগ করেছেন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসকাবে নগরীর সাগরিকা গরু বাজার ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির এক সংবাদ সম্মেলনে ব্যবসায়ীরা এসব অভিযোগ করেন।

তারা বলেন, চক্রান্তকারীদের উদ্দেশ্য যেকোনো মূল্যে চট্টগ্রামের কাঁচা চামড়ার ব্যবসা ধ্বংস করা। এছাড়া গরু, মহিষ ও অন্যান্য গবাদি পশুর বাজার ধ্বংস করে অন্যান্য মাংসের বাজার থেকে বাড়তি মুনাফা লুটে নেওয়া।

গুজব রটাতে চক্রান্তকারীরা মোটা অংকের অর্থ ব্যয় করছে বলেও অভিযোগ করেন ব্যবসায়ীরা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সভাপতি শওকত আলী। এসময় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জব্বার ও নগরীর বিবিরহাট গরুর বাজারের ইজারাদার সাইফুল হুদা জাহাঙ্গীর।

সভাপতি বলেন, ‘অ্যানথ্রাক্স আতঙ্কে চট্টগ্রামে গরু জবাইয়ের সংখ্যা চার ভাগের এক ভাগে নেমে গেছে। রোগাক্রান্ত হওয়ার ভয়ে সাধারণ মানুষ যেমন মাংসের বাজারে যাচ্ছেন না তেমনি হোটেল মালিকরাও মাংস কেনা কমিয়ে দিয়েছেন।’

সাইফুল হুদা জাহাঙ্গীর বলেন, ‘সম্প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রী একটি পত্রিকায় সাধারণ মানুষকে আপাতত মাংস খাওয়া বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন। মাংস না খেলে শরীর ভাল থাকে এমন মন্তব্যও তিনি করেছেন। এ ধরনের কথাবার্তা বিভ্রান্তি বাড়াচ্ছে।’

সার্বিক পরিস্থিতিতে বিভ্রান্তি ছড়ানো বন্ধে ব্যবসায়ীরা সরকারের হস্তপে চেয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-09-16 05:08:05