ঢাকা, বুধবার, ১ বৈশাখ ১৪২৮, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০১ রমজান ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

‘বাংলাদেশ আমাদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি বাজার’

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩১৬ ঘণ্টা, মার্চ ৯, ২০২১
‘বাংলাদেশ আমাদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি বাজার’

ঢাকা: বিশ্বের অন্যতম মূল্যবান টু-হুইলার কোম্পানি বাজাজ অটো লিমিটেড। বাজাজের বাজার মূলধন ১৩.৬ বিলিয়ন ইউএস ডলারকে ছাড়িয়ে গিয়েছে।

বাংলাদেশেও এ প্রতিষ্ঠানের বিশাল বাজার রয়েছে। অনেক আগে থেকেই উত্তরা মোটর্স লিমিটেড বাংলাদেশে এই প্রতিষ্ঠানের একমাত্র সহযোগী হিসেবে রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির আন্তর্জাতিক ব্যবসা বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট মিলিন্ড পি বাদে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন নানা বিষয় নিয়ে। এর কিছু অংশ তুলে ধরা হলো-

প্রশ্ন: বাজাজ বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম টু-হুইলার কোম্পানি হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছে। এমন একটি শীর্ষস্থানীয় সংস্থার জন্য বাংলাদেশকে বাজার হিসেবে কেমন মনে করছেন?

উত্তর: বাজার হিসেবে বাংলাদেশ আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশ বর্তমানে সর্ববৃহৎ এবং দ্রুত ক্রমবর্ধমান মোটরসাইকেলের বাজার হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। গ্রাহক হিসেবে বাংলাদেশিরা খুবই বিকশিত। তারা পারফরম্যান্স ও সুরক্ষার ক্ষেত্রে অত্যন্ত ব্র্যান্ড সচেতন এবং ভালো পণ্য প্রত্যাশা করে। তাই, বাজাজও এদেশের গ্রাহকদের জন্য সেরা মানের পণ্য সরবরাহ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

প্রশ্ন: পার্টনার হিসেবে বাংলাদেশের উত্তরা মোটর্স লিমিটেড সম্পর্কে কিছু বলুন।

উত্তর: বাজাজ অটো এবং উত্তরা মোর্টস বাংলাদেশের বাজারে বাজাজ মোটরসাইকেল শীর্ষস্থানীয় অংশিদারিত্ব ধরে রেখে এগিয়ে যাচ্ছে। এবং বাজাজ তার গ্রাহকদের সকল প্রত্যাশা পূরণ করে বাংলাদেশের মোটরসাইকেল বাজারের নেতৃত্বের স্থানে রয়েছে। উত্তরা মোটর্স বাংলাদেশে বাজাজ মোটরসাইকেল ব্র্যান্ডকে প্রতিষ্ঠা করেছে এবং ক্রমাগত বিকশিত করে যাচ্ছে। বাজাজ অটো লিমিটেড এবং উত্তরা মোটর্স লিমিটেডের মধ্যে চার দশকেরও বেশি সময় ধরে সম্পর্ক, এবং আমরা উত্তরা মোটর্সের সঙ্গে জড়িত হয়ে গর্বিত।

প্রশ্ন: বাজাজ মোটরসাইকেলের বাংলাদেশের বাজারের জন্য ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?

উত্তর: যেমনটি আমি আগেই বলেছি, এটি আমাদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি বাজার। আমাদের অংশীদার, উত্তরা মোটর্স লিমিটেড ঢাকায় একটি অত্যাধুনিক উৎপাদন কারখানা তৈরি করেছে এবং যেখানে প্রতি বছর প্রায় ২,৫০,০০০ ইউনিট উচ্চমানের মোটর সাইকেল উৎপাদন করতে পারব। আমরা অত্যন্ত আশাবাদী যে, বাংলাদেশ সরকার কিউবিক ক্যাপাসিটি বার অপসারণের বিষয়টি বিবেচনা করবেন। বাংলাদেশি গ্রাহকদের জন্য সবচেয়ে উন্নতমানের এবং সর্বাধুনিক প্রযুক্তির মোটরবাইক সরবরাহ করা বাজাজের শীর্ষ অগ্রাধিকার। আমরা আমাদের গ্রাহকদের পছন্দ অনুযায়ী ব্যবসার প্রতিটি পদক্ষেপ এগিয়ে নিয়ে যাব।

প্রশ্ন: বাজাজ অটো ব্যবসায়ের ৭৫ বছর পূর্ণ করেছে, এই যাত্রাটি কেমন ছিল?

উত্তর: বাজাজ গ্রুপ ভারতের ১০টি শীর্ষ স্থানীয় ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অন্যতম। ১৯২৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠানটি ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে বিশেষ ভূমিকা রেখেছিল। বাজাজ অটো লিমিটেড বর্তমানে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম মোটরসাইকেল উৎপাদনকারী কোম্পানি এবং তিন চাকার ভেতরে সর্ববৃহৎ কোম্পানি হিসেবে পরিচিত। ৭৫ বছর আগে যাত্রা শুরু করা এই কোম্পানিটি এখন পালসার, বক্সার, প্লাটিনা-এর মতো ব্র‍্যান্ডের মোটরসাইকেল এবং তিন চাকার আরই তৈরি করছে যা ৭০টিরও অধিক দেশে জনপ্রিয় এবং যা বাস্তবিকভাবেই বাজাজকে ‘দ্য ওয়ার্ল্ডস ফেভারিট ইন্ডিয়ান’ বানিয়েছে। এ বছর থাইল্যান্ডের বাজারে আমাদের ব্র্যান্ডটি প্রবেশ করবে এবং পরবর্তী বছরে ব্রাজিলের সঙ্গে কাজ শুরু করবে। এভাবেই বিশ্বব্যাপী বাজাজের পদচারণা ধারাবাহিকভাবে প্রসারিত হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৩১৩ ঘণ্টা, মার্চ ০৯, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa