ঢাকা, শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

এক দিনেই পণ্য ডেলিভারি দেবে ‘এনে দাও’

বিজনেস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৫০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৫, ২০২০
এক দিনেই পণ্য ডেলিভারি দেবে ‘এনে দাও’

ঢাকা: অনলাইনের শপিংয়ের মাধ্যমে পরিবারের যাবতীয় সব প্রয়োজনীয়তা পূরণের লক্ষ্যে নিয়ে সম্প্রতি যাত্রা শুরু করলো অন ডিমান্ড অনলাইন ডেলিভারি পরিষেবা ‘এনে দাও’। এক দিনে পণ্য ডেলিভারির নিশ্চয়তা এবং গ্রাহকদের রিয়েল টাইম শপিংয়ের অভিজ্ঞতা সরবরাহ করতে এ স্টার্ট-আপটি প্রতিষ্ঠা করেছেন কয়েকজন প্রতিভাবান তরুণ উদ্যোক্তা।

প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে ‘এনে দাও’ ইতোমধ্যে সব স্তরের অনলাইন গ্রাহকদের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পেয়েছে। অবসর সময়ে শপিংপ্রেমীদের জন্য ২০২০ সালের শেষের দিকে ই-কমার্স সেবা শুরু করার পরিকল্পনা করেছে ‘এনে দাও’।

এ বিষয়ে ‘এনে দাও’ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রতিষ্ঠাতা তাহমিদ হুদা লাবিব বলেন, ‘এনে দাও’ বিদেশ থেকে আমদানি করা এবং স্থানীয় প্যাকেটজাত খাবার পণ্য, বেবি আইটেম, প্রসাধনী, বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম, টয়লেটরিজ, বেকিং উপকরণ, স্টেশনারি, খেলনা এবং সব ধরনের পরিবারের প্রয়োজনীয়তার জন্য অন ডিমান্ড ডেলিভারি পরিষেবা। আমাদের কার্যক্রম শুরু হয় ঢাকার পাইকারি কেনাকাটার কেন্দ্র, গুলশান-১ ডিসিসি মার্কেট। শিগগিরই অন্যান্য বাজারকেও আমরা এ কার্যক্রমের আওয়তায় নিয়ে আসার পরিকল্পনা করছি। ’

এনে দাও সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ এবং সরাসরি ফোনের মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছ থেকে অর্ডার নেওয়া  এবং পণ্যের দাম ইত্যাদি বিষয়ের জন্য যোগাযোগ করে। আমরা আমাদের গ্রাহকদের ব্যক্তিগত ক্রয়কর্মী হওয়ার অনুভূতি দিয়ে তাদের সব চাহিদা মেটানোর লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। অর্ডার নেওয়ার সময় আমরা বাজারে বিদ্যমান বিকল্প পণ্যর কথাও উল্লেখ করি এবং দামসহ গ্রাহকদের রিয়েল টাইম ছবি প্রেরণ করি যাতে আমাদের গ্রাহকরা তাদের কেনাকাটার বিষয়ে আরও ভালো সিদ্ধান্ত নিতে পারেন বলে মন্তব্য করেন তাহমিদ হুদা লাবিব।

এনে দাও এর মাধ্যমে, প্রিয়জনদের অবাক করা আরও সহজ হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেন প্রতিষ্ঠানটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাইজা ফারহা।  

তিনি বলেন, দৈনন্দিন জীবনকে আরও সহজ করার লক্ষ্যে এনে দাও শুরু করেছে গিফট ডেলিভারি সার্ভিস যার মাধ্যমে এখন যে কোনো ব্যক্তি তাদের প্রিয়জনকে কেক, ফুল, চকলেট ইত্যাদি পাঠাতে পারেন। আমাদের পছন্দের সেবাগুলোর মধ্যে একটি। আমরা গ্রাহকদের প্রয়োজন পূরণ করি এবং তাদের ইচ্ছা এবং পছন্দ অনুযায়ী  উপহার আইটেম কাস্টমাইজ করে থাকি।  

নগর জীবনের ক্রমবর্ধমান মানসিক চাপের সঙ্গে বেশিরভাগ মানুষ এখন অনলাইন শপিংয়ের দিকে ঝুঁকছেন এবং সশরীরে দোকানে যাওয়ার প্রবণতাকে সীমাবদ্ধ করার চেষ্টা করছেন। ক্রেতারা সবসময় এমন সার্ভিসের সন্ধান করে থাকেন যা রিয়েল টাইম শপিংয়ের অভিজ্ঞতা দেয় এবং যেটি কিনা ওয়ান স্টপ সমাধান যা পুরো পরিবারের প্রয়োজনীয়তা পূরণ করতে সক্ষম। এনে দাও এমনই একটি সার্ভিস যা গ্রাহককে তাদের দোরগোড়ায় রিয়েল টাইম শপিংয়ের অভিজ্ঞতা সরবরাহ করে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৫, ২০২০
আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa