ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

একুশশ’ টাকায় ত্রিশ বস্তা পেঁয়াজ!

জি এম মুজিবুর, সিনিয়র ফটো করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৮, ২০২০
একুশশ’ টাকায় ত্রিশ বস্তা পেঁয়াজ! পচা পেঁয়াজ বাছাই করছেন এক ব্যক্তি। ছবি: জি এম মুজিবুর

ঢাকা: পেঁয়াজ নিয়ে সারা দেশে হাহাকার। ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরবরাহ নেই বলে দাম কমছে না।

জনগণ নাখোশ। সরকার বেকায়দায়! এর মধ্যেও কিছু অসাধু ব্যবসায়ী গুদামে রেখে পচিয়ে ফেলছেন পেঁয়াজ। আর পচা পেঁয়াজ ফেলে দিচ্ছেন রাতের অন্ধকারে কিংবা গোপনে বেচে দিচ্ছেন পানির দরে।  

এমন ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেল রাজধানীর মিরপুর ১৪ নম্বর ডেন্টাল কলেজের পূর্ব পাশে। মঙ্গলবার সেখানে দেখা গেল ডাস্টবিনের পাশে বসে পচা পেঁয়াজের বস্তা থেকে ভালো পেঁয়াজ আলাদা করছেন সুজন (৩২) নামের এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী।

জিজ্ঞেস করতেই জানালেন, ৩০ বস্তা পচা পেঁয়াজ তিনি ২১০০ টাকায় কিনে নিয়েছেন। সেগুলো থেকে ভালো পেঁয়াজগুলো আলাদা করছেন।

পচা পেঁয়াজ বাচছেন এক ব্যক্তি।  ছবি: জি এম মুজিবুর

সুজন বাংলানিউজকে জানান, তার বাড়ি কিশোরগঞ্জ। অনেকদিন ধরেই তিনি ওই এলাকায় বাস করেন। তিনি একজন মৌসুমী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী।

তিনি জানান, শ্যামবাজার থেকে তিনি ওই ৩০ বস্তা পচা পেঁয়াজ কিনেছেন। তবে আড়তদারের নাম ঠিকানা তিনি বলতে পারেন না। দাম নিয়ে তাকে কোনো ভাউচারও দেয়নি।  

পচা পেঁয়াজ বাচছেন এক ব্যক্তি।  ছবি: জি এম মুজিবুর

সুজন জানান, আড়তগুলোতে প্রতিদিনই বস্তা বস্তা পেঁয়াজ পচে যাচ্ছে। রাতের আঁধারে সেগুলো ফেলে দেওয়া হচ্ছে।  

তিনি জানান, বাছাই করা পেঁয়াজগুলো তিনি ভ্যানে করে বিক্রি করবেন ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি।

পথচারী আব্দুর রফিক মিয়া বাংলানিউজকে জানান, রাস্তার পাশে এরকম পচা পেঁয়াজের  বস্তা পড়ে থাকতে দেখে খুব কষ্ট পাচ্ছি। ২০-২৫ টাকার পেঁয়াজ মানুষকে ১০০-১৫০ টাকায় কিনে খেতে হচ্ছে। আর অর্থলোভীরা গোড়াউনে পেঁয়াজ পচিয়ে ফেলছে। সরকার কি এসব ব্যবসায়ীদের চোখে দেখে না? 

বাংলাদেশ সময়: ১০০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৮, ২০২০
জিএমএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa