ঢাকা, শনিবার, ৯ কার্তিক ১৪২৭, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

আম, আনারসসহ বিভিন্ন খাদ্যপণ্য নেবে তুরস্ক: কৃষিমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২০২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০
আম, আনারসসহ বিভিন্ন খাদ্যপণ্য নেবে তুরস্ক: কৃষিমন্ত্রী

ঢাকা: তুরস্ক বাংলাদেশ থেকে আম, আনারসসহ বিভিন্ন ফুড আইটেম নেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রহমান। একইসঙ্গে এগ্রো প্রসেসিং ও কৃষি যান্ত্রিকীকরণে তুরস্কের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর)  সচিবালয়ে কৃষি মন্ত্রণালয়ে নিজ দফতরে কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে ঢাকায় নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা ওসমান তুরান সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎকালে দু'দেশের কৃষি, প্রাণিসম্পদ, কৃষি যন্ত্রপাতি এবং ফুড প্রসেসিং নিয়ে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা হয়।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, তুরস্কের সঙ্গে বাংলাদেশের গভীর সম্পর্ক বিদ্যমান। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, এ সম্পর্ক অটুট থাকবে। ভবিষ্যতে অর্থনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিকসহ সবক্ষেত্রে সহযোগিতা আরও বাড়াবো।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের নানাবিধ উদ্যোগ এবং কৃষিখাতে প্রণোদনার ফলে কৃষিতে অভাবনীয় সাফল্য এসেছে। বাংলাদেশ দানাদার খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছে। এখন মূললক্ষ্য হলো কৃষিকে বাণিজ্যিকীকরণ ও আধুনিকীকরণ করা। সেজন্য কৃষিপণ্যের প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বাজারজাতে সরকার গুরুত্বারোপ করছে। বাংলাদেশ কৃষিপণ্যের প্রক্রিয়াজাতকরণে তুলনামূলকভাবে পিছিয়ে থাকায় এক্ষেত্রে দু'দেশের একসঙ্গে কাজ করার সুযোগ রয়েছে।

কৃষিক্ষেত্রে বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করে তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা উসমান তুরান বলেন, তুরস্কের অর্থনীতিতে কৃষির গুরুত্ব অপরিসীম। তুরস্ক খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং তুরস্কের ফুড প্রসেসিং ইন্ড্রাস্ট্রি অনেক শক্তিশালী। এসময় তিনি ফুড প্রসেসিংসহ কৃষিক্ষেত্রে সহযোগিতার বিষয়ে আশ্বাস দেন।

তিনি বলেন, টার্কিশ কো-অপারেশন অ্যান্ড কোঅর্ডিনেশন এজেন্সি (টিআইকেএ) বাংলাদেশকে ফুড প্রসেসিংয়ে সহযোগিতার জন্য উদ্যোগ নেবে। এছাড়া তুরস্কের বেসরকারি খাতের ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তাদেরও দু'দেশের পারস্পরিক সহযোগিতার খাত চিহ্নিতকরণ ও কো-অপারেশনের ব্যাপারে সম্পৃক্ত করতে উদ্যোগ নেওয়া হবে। এসময় তুরস্কের রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশ থেকে আম, আনারসসহ বিভিন্ন ফুড আইটেম নেওয়ার আগ্রহ ব্যক্ত করেন।

কৃষিক্ষেত্রে বৈজ্ঞানিক ও প্রযুক্তিগত সহযোগিতার বিষয়ে ২০১২ সালে বাংলাদেশ ও তুরস্কের মধ্যে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছিল। সাক্ষাৎকালে তার আলোকে কৃষি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, বায়োটেকনোলজি, এগ্রো ফুড প্রসেসিং ও প্যাকেজিং, কৃষি যন্ত্রপাতি, বীজ উৎপাদন, জলবায়ু পরিবর্তন অভিঘাত সহনশীল বিভিন্ন জাত উদ্ভাবন ও গবেষণা প্রভৃতি বিষয়ে দু'দেশের পারস্পরিক সহযোগিতা জোরদারকরণে আগ্রহ পুনব্যক্ত করে দু'দেশ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০ 
জিসিজি/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa