ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

খুলনায় কমেছে ইলিশ ও পেঁয়াজের দাম

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০
খুলনায় কমেছে ইলিশ ও পেঁয়াজের দাম

খুলনা: ইলিশে সয়লাব হয়ে গেছে খুলনার মাছ বাজারগুলো। কেবল মাছ বাজার নয়, মহানগরীর অলিগলিতে ভ্যানে ও মাথায় ইলিশ নিয়ে ছুটছেন খুচরা বিক্রেতারা।

দাম তুলনামূলকভাবে কম হওয়ায় ক্রেতারাও কিনছেন দেদারছে।

যে যতটুকু পারছেন কিনছেন। অনেকে আবার প্রয়োজনের তুলনায় বেশিও কিনছেন। তাতে ক্রেতারা যেমন হাসিমুখে ব্যাগভর্তি ইলিশ নিয়ে ফিরছেন বাড়ির পথে, বেশি বেশি ইলিশ বিক্রি করা বিক্রেতাদের মুখটাও তেমনই হাসি খুশি। নিজেরা কমে কিনতে পারছেন বলেই ক্রেতাদের হাতে কম দামে তুলে দিতে পারছেন ‘মাছের রাজা’ ইলিশ তাতে তৃপ্তিবোধও রয়েছে তাদের।

শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) কেসিসি রূপসা পাইকারি মৎস্য আড়তে কেজিতে ১০০ থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত কমেছে ইলিশের দর। সরবরাহ বাড়ায় দেশি এবং চাষের মাছের দামও কমেছে কেজিতে ১০০ টাকা পর্যন্ত।

বাজারের মাছ ব্যবসায়ীরা বলেন, সপ্তাহের প্রতিদিনই ক্রেতা-বিক্রেতায় মুখর থাকে এ পাইকারি মাছ বাজার। তবে, সাপ্তাহিক ছুটির দিনে চাহিদার চাপ যেমন বাড়ে তেমনি সরবরাহও বাড়ে।

কেসিসি রূপসা পাইকারি মৎস্য আড়তের মেসার্স মদিনা ফিস ট্রেডার্স পরিচালক মো. আবু মুসা বাংলানিউজকে বলেন, আড়তে আগের তুলনায় অনেক ইলিশ আসছে। দামও কম। গত দু'তিনদিনের ব্যবধানে গড়ে কেজিতে প্রায় ১০০ থেকে ২০০ টাকা কমেছে।

তিনি জানান, সাগরের ২০০ থেকে ৫০০ গ্রাম সাইজের ইলিশ ২০০ থেকে ৩০০ টাকা, ৫০০ থেকে ৮০০ গ্রাম সাইজের প্রতি কেজি ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা,  ৮০০ থেকে ৯০০ গ্রাম সাইজের প্রতি কেজি ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা ও এক কেজি সাইজের ইলিশ ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা দবে বিক্রি হচ্ছে। দেড় কেজি সাইজের ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা। অপরদিকে নদীর ২০০ থেকে ৫০০ গ্রাম সাইজের প্রতি কেজি ইলিশের দাম ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকা, ৫০০ থেকে ৮০০ গ্রাম সাইজের প্রতি কেজি ৬০০ থেকে ৬৫০ টাকা, ৮০০ থেকে ৯০০ গ্রাম সাইজের প্রতি কেজি ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়[ এক কেজি সাইজের ইলিশ ৮৫০ থেকে ৯০০ টাকা, দেড় কেজি সাইজের ১০০০ থেকে ১০৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এ আড়ৎ থেকে মাছ কিনে স্বস্তি প্রকাশ করে বেসরকারি ব্যাংক কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন বলেন, দেড় কেজি ওজনের নদীর ইলিশের প্রতি কেজির দাম ১০০০ টাকা। এর থেকে আর কত কমবে? দাম কম শুনে বেশ কিছু মাছ কিনেছি।

এদিকে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ ও খুলনা মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে কয়েক দফায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হওয়ার কারণে বাজারে পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে। দেশি পেঁয়াজ ৮০ থেকে ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অথচ ভারতের পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের ঘোষণার পর খুলনায় এক রাতের ব্যবধানেই পেঁয়াজের দাম কেজিতে বেড়েছিল ৩০-৪০ টাকা। খুচরা বাজারে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছিল ১০০-১২০ টাকা। যা ছিল ৪০-৫০ টাকা। ভারতীয় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৬০ থেকে ৬৫ টাকা, যা গত দু'দিন আগে ছিল কেজিপ্রতি ৮০ টাকা।

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, ভোমরা ও বেনাপোল বন্দরে আটকে থাকা পেঁয়াজভর্তি ট্রাক ছেড়ে দেওয়ার খবরে খুলনায় পেঁয়াজের দাম কমছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০
এমআরএম/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa