bangla news

মাউন্টেন ডিউ নিয়ে এলো ‘ভয়ের পরেই জয়’ ক্যাম্পেইন

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-১৮ ৭:০০:৩৯ পিএম
মাউন্টেন ডিউর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হৃতিক রোশন

মাউন্টেন ডিউর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হৃতিক রোশন

ঢাকা: মাউন্টেন ডিউ সবসময় বিশ্বাস করে এসেছে নিজের মনের ভয় এবং দ্বিধা জয় করার মাধ্যমেই ‘সাধারণ’ থেকে ‘অসাধারণ’ হয়ে ওঠা সম্ভব; এই বিশ্বাসের ধারাবাহিকতায় মাউন্টেন ডিউ এবছর নিয়ে এলো ভয়ের পরেই জয় ক্যাম্পেইন, যা বাংলাদেশের তরুণদের উদ্বুদ্ধ করবে তাদের ভয়কে জয় করার জন্য।

জনপ্রিয় সুপারস্টার ও মাউন্টেন ডিউর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হৃতিক রোশন অভিনীত মাউন্টেন ডিউর নতুন টিভিসি এখন সম্প্রচারিত হচ্ছে। এখানে দেখানো হয়েছে যে, বাধা-বিপত্তির মুখে শুধুমাত্র নিজের মনের ভয়কে জয় করার মাধ্যমেই আমরা শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করতে পারবো।

টিভিসির গল্পটি শুরু হয় এক মুভি সেটে, অ্যাকশন হিরোর সঙ্গে। ভয়ানক মোটরসাইকেল স্টান্ট করতে প্রস্তুত সে, কিন্তু ভেতরে থাকা ভয় তার চোখে-মুখে ভেসে উঠছিলো। দ্বিধা-দ্বন্দ্বে থাকা হিরো মুখ ঘুরিয়ে মাউন্টেন ডিউ হাতে নিয়ে চুমুক দেয়, আর সঙ্গে সঙ্গে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রস্তুত হয়।

এই টিভিসিতে মাউন্টেন ডিউর মূল ভাবনা আবারও প্রতিফলিত হয়েছে। মাউন্টেন ডিউ বিশ্বাস করে, যেকোনো চ্যালেঞ্জের মুখে সবার সামনে দুটি পথ খোলা থাকে; হয় ভয়ের কাছে পরাজয় স্বীকার করে পিছিয়ে যাওয়া অথবা ভয়কে জয় করে সামনে এগিয়ে যাওয়া-আসল হিরোরা শেষের পথটি বেছে নেয়, যা তাদেরকে অন্যদের থেকে আলাদা করে।

টিভিসিটি শুট করার অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে হৃতিক রোশন বলেন, সত্যিকারের হিরো হচ্ছেন তিনি, যিনি নিজেকে নতুন সীমানায় নিয়ে যান এবং শেষ পর্যন্ত ভয়কে জয় করেন। সবার ধারণা চলচ্চিত্র অভিনেতারা নির্ভয় ও অপরাজেয়। কিন্তু এমন অনেক সময় আছে যখন কোনো একটি স্টান্ট বা অ্যাকশন সিকোয়েন্সের কথা শুনে আমি নিজেকে প্রশ্ন করি, আমি কি এটা আদৌ করতে পারবো? ভয় সবাই পায়। কিন্তু ভয় পেয়ে পিছিয়ে না গিয়ে ভয়ের মুখোমুখি হওয়াই আসল সাহসিকতার পরিচয় দেয়। যারা চ্যালেঞ্জকে জয় করছে তাদেরকে আমি সম্মান জানাই।

মাউন্টেন ডিউর ‘ভয়ের পরেই জয়’ ভাবনায় আমি প্রবলভাবে বিশ্বাসী এবং আবার সিদ্ধার্থ আনন্দকে সঙ্গে নিয়ে এই ভাবনাকে স্ক্রিনে ফুটিয়ে তুলতে পেরে আমি রোমাঞ্চিত।

ক্যাম্পেইনটি নিয়ে ট্রান্সকম বেভারেজ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও খুরশীদ ইরফান চৌধুরী বলেন, মাউন্টেন ডিউ বাংলাদেশের অন্যতম দ্রুতবর্ধনশীল সফ্ট ড্রিংকস ব্র্যান্ড। সুপারস্টার হৃতিক রোশনের সঙ্গে আমাদের যে নতুন ক্যাম্পেইনটি শুরু হয়েছে তা ‘ভয়ের পরেই জয়’ মূল ভাবনাকে বাংলাদেশের দর্শকদের কাছে আরও শক্তিশালী করবে। আগের প্রতিটি ক্যাম্পেইনে আমরা দর্শকদের কাছ থেকে অভূতপূর্ব সাড়া ও ভালোবাসা পেয়েছি, সেগুলোই আমাদের ২০২০ সালে নিজের মনের ভয় জয় করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার বার্তা নিয়ে একটি দারুণ ক্যাম্পেইন করার অনুপ্রেরণা দিয়েছে।

মাউন্টেন ডিউ বাংলাদেশের মানুষের অত্যন্ত পছন্দের একটি ব্র্যান্ড এবং মানুষের ভয়ের মুহূর্তগুলোতে সাহস যোগানোর পার্টনার।

বিজ্ঞাপনটির মূল বক্তব্য ‘ভয়ের পরেই জয়’, এই মূল ভাবনা থেকেই নেওয়া হয়েছে। একজন অ্যাকশন হিরোর গল্প, যে নিজের ভয়কে জয় করে একটি অ্যাকশন সিকোয়েন্স শুট করে, সেই গল্পটি এখানে একটি শক্তিশালী বার্তা দেয়। এমন একটি বার্তা যা বাংলাদেশের দর্শক অনেক পছন্দ করবে এবং ব্র্যান্ডটিকে সবসময়ের মতো ভালোবাসতে থাকবে বলেন পেপসিকো বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার দেবাশীষ দেব।

ট্রান্সকম বেভারেজেস লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার (সেলস, ডিস্ট্রিবিউশন এবং মার্কেটিং) দীপিন্দর সিং টিওয়ানা বলেন, যারা মাউন্টেন ডিউর ‘ভয়ের পরেই জয়’ মূল ভাবনায় বিশ্বাস রেখে নিজের ভয়ের মুখোমুখি হয়ে অবিশ্বাস্য কিছু জয় করতে ঝাঁপিয়ে পড়ে, তাদের স্পিরিটকে আমরা সবসময় সাধুবাদ জানাই। ২০২০ সালে, মাউন্টেন ডিউ বিশ্বাস করে যে, আমরা প্রত্যেকেই নিজের ভেতরের ভয়ে ভারাক্রান্ত, কিন্তু আসল হিরো শুধুমাত্র তারাই যারা মাথা উঁচু করে সেই ভয়কে মোকাবিলা করে বিজয়ী হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০০ ঘণ্টা, জুন ১৮, ২০২০
এএটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-18 19:00:39