bangla news

রাজশাহীতে ৩ লাখ ৭৫ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুত

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-২০ ৩:৩১:৫৪ এএম
বিভাগীয় কমিশনার মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকারসহ অতিথিরা, ছবি: বাংলানিউজ

বিভাগীয় কমিশনার মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকারসহ অতিথিরা, ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী: রাজশাহী বিভাগে বর্তমানে তিন লাখ ৭৫ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় কমিশনার মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বিকেলে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে বিভাগটিতে খাদ্যসহ নিত্যপণ্যের মূল্য, মজুত ও সরবরাহ স্থিতিশীল রাখতে জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় সভাপতির বক্তব্যে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার এ তথ্য দেন।

বিভাগীয় কমিশনার বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। রাজশাহী বিভাগে বর্তমানে তিন লাখ ৭৫ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুত রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে কেউ মজুতদারি করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

'আর করোনা ভাইরাস ইস্যুতে কেউ যদি অতিরিক্ত মজুত করেন অথবা পণ্যের অতিরিক্ত মূল্য ধার্য করেন, তাহলে আমরা কঠোর হব। তবে ব্যবসায়ীদের প্রতি জ্ঞাতসারে কোনো অন্যায় করা হবে না।

তিনি বলেন, জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ে এ বিষয়ে মনিটরিং টিম গঠন ও কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। জরুরি প্রয়োজনে জেলা প্রশাসকসহ মনিটরিং টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করা যাবে। এসময় নিত্যপণ্যের মজুতদারি না করার জন্য ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দকে অনুরোধ করেন বিভাগীয় কমিশনার।

তিনি আরও বলেন, সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এ পরিস্থিতি উত্তোরণ করতে আমরা সক্ষম হব। তিনি জনগণকে অতিরিক্ত পণ্য কেনা থেকে বিরত থাকারও অনুরোধ জানিয়েছেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে রাজশাহী রেঞ্জের উপ-মহাপুলিশ পরিদর্শক একেএম হাফিজ আক্তার, পুলিশ কমিশনার মো. হুমায়ুন কবির, জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক, আঞ্চলিক তথ্য অফিস রাজশাহীর উপ-প্রধান তথ্য অফিসার মোহাম্মদ আফরাজুর রহমান, চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. মাসুদুর রহমান রিংকুসহ বিভাগের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৩৩০ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২০
এসএস/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাজশাহী
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-20 03:31:54