ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৪ আগস্ট ২০২০, ১৩ জিলহজ ১৪৪১

শিল্প

চাহিদা মিটিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করবে বসুন্ধরা বিটুমিন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-২২ ০৭:৩১:১২ পিএম
চাহিদা মিটিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করবে বসুন্ধরা বিটুমিন

কেরাণীগঞ্জ থেকে: দেশের চাহিদা মিটিয়ে রপ্তানির লক্ষ্যে যাত্রা শুরু করেছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন বসুন্ধরা বিটুমিন প্ল্যান্ট। এটিই দেশের প্রথম কোনো বেসরকারি বিটুমিন প্ল্যান্ট। 

সড়ক নির্মাণে উন্নত বিটুমিনের যোগান দিতে ‘রোড টু দ্য ফিউচার’ স্লোগানে এ প্রকল্পটি নিয়ে এসেছে দেশের শীর্ষ শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ।  

দেশের চাহিদা মিটিয়েও বিদেশে রপ্তানির মাধ্যমে দেশের ভাবমূর্তি বিশ্ববাজারে উজ্জ্বল করার পাশাপাশি দেশের জন্য সাশ্রয় ও বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন দুটিই করবে বসুন্ধরা বিটুমিন।

 

শুধু তাই নয়, ২০২১ সালের মধ্যে বসুন্ধরা বিটুমিন-এর বাৎসরিক উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ৯ লাখ মেট্রিক টন। এ উৎপাদন ক্ষমতা দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।  

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ঢাকার অদূরে কেরাণীগঞ্জের পানগাঁওয়ে গড়ে ওঠা বিটুমিন প্ল্যান্টটির উদ্বোধন করা হয়।  উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।  

বিটুমিন প্ল্যান্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথিদের নিয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান।  ছবি: ডিএইচ বাদল/বাংলানিউজবিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান, বসুন্ধরা গ্রুপের কো-চেয়ারম্যান সাদাত সোবহান তানভীর, বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়াত সোবহান সানভীর, ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীর এবং ওয়ালিদ সোবহান।

বসুন্ধরা গ্রুপের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, বরাবরের মতো এবারও বসুন্ধরা গ্রুপ একটা ভালো উদ্যোগ নিচ্ছে। পিছিয়ে পড়া মানুষকে এগিয়ে নেওয়াসহ কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে দেশে অবদান রাখছে বসুন্ধরা গ্রুপ।  

পড়ুন>>আমাদের সব উৎসাহের মূলে বঙ্গবন্ধু: আহমেদ আকবর সোবহান 

‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী সড়ক নিয়ে সব সময় উদ্বিগ্ন। বেহাল সড়কের কথা একনেক (জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি) সভায় উনি বারবার বলেছেন। আমাদের দেশের আবহাওয়ার সঙ্গে খাপ খায়-এমন  বিটুমিন আমরা কখনও পাইনি। ’ 

তিনি বলেন, সামান্য বৃষ্টি হলেই সড়কের বিটুমিন নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তবে নতুন আশার জায়গা হলো বসুন্ধরা বিটুমিন দেশের চাহিদা পূরণ করবে। বসুন্ধরা বিটুমিন শুধু দেশেরই চাহিদা পূরণ করবে না বরং বিদেশে রপ্তানি করা যাবে। আমি বলতে পারি নিঃসন্দেহে এটা একটি সাহসী উদ্যোগ। এটা একটা বড় অর্জন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, এর আগে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যানের সঙ্গে আমার আলাপ হচ্ছিল। আমি উনাকে বলেছি একটা বড় কারখানা প্রতিষ্ঠিত করতে হবে যেন তিন লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হয়। তিনি (বিজি চেয়ারম্যান) আমায় আশ্বস্ত করেছেন চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে এমন একটা কারখানা গড়ে তোলা হবে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, বিটুমিন ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী, আমদানিকারক, ঠিকাদার, বিভিন্ন পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ও পরিবহন মালিক সংস্থা ছাড়াও বসুন্ধরা গ্রুপের অন্যান্য ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বিভিন্ন পরিবেশক, কর্পোরেট গ্রাহকসহ বসুন্ধরা গ্রুপের কর্মকর্তা, স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

বিটুমিন প্ল্যান্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।  ছবি: ডিএইচ বাদল/বাংলানিউজদেশ ও জনগণের কল্যাণে বসুন্ধরা গ্রুপের যে অবদান, তাতে যোগ হয়েছে এক নতুন মাত্রা। বাংলাদেশের বেসরকারি খাতে প্রথম বিটুমিন প্ল্যান্ট। বিটুমিন মূলত আমদানি নির্ভর একটি পণ্য।  

দেশে বর্তমানে বিটুমিনের চাহিদা প্রায় ৫ লাখ টন, যার ৯০ শতাংশই আমদানি করতে হয়। উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সম্প্রসারিত হওয়ায় প্রতিবছর এর চাহিদা ১০ থেকে ১৫ শতাংশ হারে বাড়ছে।  

বর্তমানে বংলাদেশ সড়ক ও জনপদ (সওজ) বিভাগের অধীনে প্রায় ২২ হাজার কিলোমিটার সড়ক ও মহাসড়ক রয়েছে, যার বড় অংশই সম্প্রসারিত হচ্ছে। সরকার দেশের প্রতিটি জাতীয় সড়ক চার ও ছয় লেনে উন্নীত করার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে। এছাড়াও জেলা পর্যায়েও সড়ক সম্প্রসারণের পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।  

সারাদেশে স্থানীয় সরকারের অধীনে প্রায় ৩ লাখ ৫৪ হাজার কিলোমিটার রাস্তা হয়েছে; যার মধ্যে প্রায় ১ লাখ ৫ হাজার কিলোমিটার পিচঢালা পাকা রাস্তা। ভবিষ্যতে স্থানীয় সরকার বিভাগের সমগ্র রাস্তাই পাকা করার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার।  

ফলে ভবিষ্যতে দেশে বিটুমিনের চাহিদা বাড়বে। প্রকৌশলীদের চাহিদা অনুযায়ী, সড়কে ব্যবহারের জন্য বসুন্ধরা বিটুমিন প্ল্যান্টের পেনিট্রেশন গ্রেড (৬০/৭০, ৮০/১০০) বিটুমিন উৎপাদন ছাড়াও প্রিমিয়াম মানের যেমন কাটব্যাক, ইম্যালসিফাইড, অক্সিডাইজড ও পলিমার (এসবিএস, রাবার পাউডার) বিটুমিন উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে। বসুন্ধরা বিটুমিন প্ল্যান্টের ৩৭ হাজার মেট্রিক টন ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন স্টোরেজ ট্যাঙ্ক রয়েছে।

অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন বসুন্ধরা গ্রুপের  চেয়ারম্যান  আহমেদ আকবর সোবহান। আর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদকে স্মারক তুলে দেন বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান।  

এদিকে অনুষ্ঠানে বসুন্ধরা বিটুমিনের অডিও ভিজুয়্যাল ও লেজার শো-তে বিস্তারিত তুলে ধরা হয়।  

আরও পড়ুন>> বসুন্ধরা বিটুমিন প্ল্যান্টের যাত্রা শুরু

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০
এমআইএস/এমইউএম/এমএ ​

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa