bangla news

৩ দিবসকে ঘিরে ব্যস্ত পঞ্চগড়ের ফুল বিক্রেতারা

সোহাগ হায়দার, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-১৩ ২:১৬:৪৩ পিএম
ফুলে পানি ছিটাচ্ছেন বিক্রেতা। ছবি: বাংলানিউজ

ফুলে পানি ছিটাচ্ছেন বিক্রেতা। ছবি: বাংলানিউজ

পঞ্চগড়: বাঙালি জাতির গর্বের ও ভাষার মাস ‘ফেব্রুয়ারি’। আর এ গর্বের মাসের তিন দিবসকে ঘিরে পুরোদমে ব্যস্ত সময় পার করছেন দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের ফুল চাষি ও বিক্রেতারা।

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি একই দিন পহেলা ফাল্গুন ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবস হওয়ার পাশাপাশি ২১ শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাগান পরিচর্যার পাশাপাশি পুরোদমে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে এবার ভিন্ন চিত্র। পঞ্চগড় জেলায় স্থানীয়ভাবে ফুল চাষ হওয়ায় এবং ফুলের বাম্পার ফলনে লাভের আশা করছেন ফুল চাষি ও ব্যবসায়ীরা।ক্ষেতে কাজ করছেন চাষি।ছবি: বাংলানিউজসাধারণত ফেব্রুয়ারি মাসে বাজারে বিভিন্ন ধরনের ফুলের চাহিদা থাকলেও এবার নিজেদের ফুল দিয়ে সাজিয়ে তুলেছেন নিজ নিজ ফুলের দোকান এবং পঞ্চগড়ের ফুল এলাকার চাহিদা মিটিয়ে বাইরেও বিক্রি করছেন ফুল চাষিরা।

স্থানীয় ফুলচাষি ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ‘ফেব্রুয়ারি’ মাসে ৩ দিবসকে ঘিরে ফুলের চাহিদা ব্যাপক থাকায় মাসটির শুরু থেকেই ব্যস্ততায় থাকছেন তারা। একই দিনে পহেলা ফাল্গুন ও ভালোবাসা দিবসসহ আগামী ২১ ফেব্রুয়ারিকে ঘিরে ফুলের চাহিদা অনেকটাই বাড়বে বলেও জানান তারা।ফুলের দোকানে দুই তরুণী। ‘মরিয়ম নার্সারির স্বত্বাধিকারী আবুল কালাম আজাদ বাংলানিউজকে বলেন, ফেব্রুয়ারি মাসে গোলাপ, গ্ল্যাডিওলাস, গাঁদাসহ বিভিন্ন জাতের ফুলের অনেক চাহিদা বেড়ে যায়। তাই আমরা এবার নিজস্ব জমিতে ফুল চাষ করেছি। আশা করি, নিজস্ব জমির ফুলে চাহিদা মিটিয়ে কিছুটা ভালো আয় করতে পারবো।

ফুল বিক্রেতা লিমা বাংলানিউজকে বলেন, বিভিন্ন দিবস ছাড়া তেমন ফুলের চাহিদা থাকে না। আশা করছি, এই তিনটি দিবসে ফুল বিক্রি করে ভালো আয় করা যাবে।

পঞ্চগড় জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালাক আবু হানিফ বাংলানিউজকে বলেন, কিছু কিছু জমিতে চাষ হলেও এর আগে পঞ্চগড় জেলায় তেমন ভাবে ফুলচাষ হয়নি। এবার বিভিন্ন ফসলের পাশাপাশি ফুলের চাষ ভালোই হয়েছে। আমরা চাষিদের পর্যাপ্ত সহযোগিতা দিয়ে আসছি। আশা করছি, আগামীতে পঞ্চগড়ে ফুলচাষ আরও বাড়বে বলেও জানান এ কৃষি কর্মকর্তা।জাম্বু গাঁদা।এদিকে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) একই দিন পহেলা ফাল্গুন ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। অন্যদিকে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হওয়ায় ৩ দিবসকে ঘিরে ফুল বিক্রি করে ভালো আয়ের স্বপ্ন দেখছেন ফুল চাষিসহ বিক্রেতারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০
এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   পঞ্চগড়
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-13 14:16:43