ঢাকা, বুধবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

বসুন্ধরা আবাসিক প্রকল্পের কিউ-ব্লকের প্লট বাছাই

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১২ ঘণ্টা, জানুয়ারী ২৫, ২০২০
বসুন্ধরা আবাসিক প্রকল্পের কিউ-ব্লকের প্লট বাছাই পুষ্পগুচ্ছ হলে ইস্ট ওয়েস্ট প্রপার্টি ডেভেলপমেন্ট (প্রা.) লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) আবুল কালাম শামীমসহ অন্যরা। ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকা: দেশের মানুষের আবাসন সমস্যার সমাধানে প্রায় তিনযুগ ধরে কাজ করছে বসুন্ধরা গ্রুপ। অর্জন করেছে মানুষের আস্থা। বসুন্ধরা গ্রুপের প্রতি আস্থা রাখা সেই সব ক্রেতাদের জন্য বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার কিউ-ব্লকের প্লটের লোকেশন চিহ্নিত করা হয়েছে।

শনিবার (২৫ জানুয়ারি) রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরার (আইসিসিবি) পুষ্পগুচ্ছ হলে প্লট মালিকদের উপস্থিতিতে বাছাই কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে ইস্ট ওয়েস্ট প্রপার্টি ডেভেলপমেন্ট (প্রা.) লিমিটেড। ক্রেতারা নিজেদের প্লট নম্বর অনুসারে লটারির মাধ্যমে নিজেদের লোকেশন বাছাই করেন।

এ সময় ইস্ট ওয়েস্ট প্রপার্টি ডেভেলপমেন্ট (প্রা.) লিমিটেডের (ইডব্লিউপিডিএল) উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) আবুল কালাম শামীম বলেন, বসুন্ধরা প্রকল্পের প্লট কিনে বসুন্ধরা পরিবারের সদস্য হওয়ার জন্য আপনাদেরকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। আমরা প্লট বাছাই কার্যক্রমে একটু দেরি করেছি। তবে আমি জানি সবুরে মেওয়‍া ফলে। এই দেরির পেছনে একটি অন্তর্নিহিত কারণ আছে। একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে বলতে পারি, আপনাদের জন্য দেরি হওয়াটা মঙ্গলজনক করে দেখাবো।

তিনি আরও বলেন, আমার প্লট এ ব্লকে। ১৯৮৭ সাল থেকে সেখানে আছি। পরে দেখা গেলো আমার প্লটের চেয়ে ডি-ব্লক বেশি গুরুত্ব পেলো। আপনারা আজ যেখানে আইসিসিবিতে বসে আছেন, এখানে আমাকে বিনামূল্যে প্লট দিলেও নিতাম না। এখন দেখুন ঢাকা শহরের সবচেয়ে সুন্দর জায়গা এটি। আমাদের মূলনীতি হচ্ছে আমরা জঙ্গলে বাঁশ কেটে বাঁশি বানাই। আমরা সবসময় বলি আমাদের প্লটের দাম ২৫ বছরে ২শ গুণ বেড়েছে। প্লট হস্তান্তরের পরে আপনারা যাতে আকাঙ্ক্ষা অনুযায়ী একটি প্লট পান, আমরা সেই ব্যবস্থা করেছি।

প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধা তুলে ধরে আবুল কালাম শামীম বলেন, আমাদের এই (কিউ-ব্লক) প্রকল্পের পশ্চিমপাশ দিয়ে একটি নদী। পূর্ব পাশে তুরাগ নদ। আর্মি কর্মকর্তাদের হাউজিং প্রকল্প জলসিঁড়ি আপনাদের পাশেই রয়েছে। পরিবেশ ছাড়পত্র, ডিটেইল এরিয়া প্লান নির্দেশনা পালন করে এই প্রকল্প প্রস্তুত করা হয়েছে। এই প্রকল্পের খুব কাছে প্রায় একশ বিঘা জমির উপর মানসম্পন্ন দু’টি ইন্টারন্যাশনাল স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হবে। একটি ছেলেদের, অন্যটি মেয়েদের। আপনাদের উপভোগের জন্য বসুন্ধরা গ্রুপ একটি স্পোর্টস কমপ্লেক্সের ব্যবস্থা করবে। ২৫০ বিঘা জমির উপর আন্তর্জাতিক মানের একাধিক ফুটবল মাঠ, ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সুইমিং পুল নির্মাণ করা হবে।

তিনি আরও বলেন, প্লট বাছাই এবং সিলেশনের মধ্যে আমরা কোনো পার্থক্য রাখিনি। বাছাই একটি আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া। সুযোগ-সুবিধাগুলো আমরা এমন ভাবে করেছি, আপনি যেখানেই প্লট পান না কেনো সেখানেই মূল্যবান।

বসুন্ধরা হাউজিংয়ের হেড অব ডিভিশন, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর (সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং) বিদ্যুৎ কুমার ভৌমিক বলেন, প্রথমে দুঃখ প্রকাশ করছি, প্লট বাছাই কাজটি একটু দেরিতে হওয়ার জন্য। গত ২৫ বছর ধরে চেষ্টা করে যাচ্ছি মানুষের আবাসন সমস্যা সমাধানের। প্রধানমন্ত্রী ঢাকার আবাসন সমস্যা সমাধানে ১৪টি স্যাটেলাইট টাউন করার উদ্যোগ নিয়েছেন। আমরা সেই উদ্যোগে একসঙ্গে কাজ করতে চাই।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ইস্ট ওয়েস্ট প্রপার্টি ডেভেলপমেন্ট (প্রা.) লিমিটেডের (ইডব্লিউপিডিএল) উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাওহীদুল ইসলাম, বসুন্ধরা গ্রুপের মিডিয়া উপদেষ্টা মোহাম্মদ আবু তৈয়ব, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর লিয়াকত হোসেন, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর (সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং) তৌহিদুল ইসলাম প্রমুখ।  

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বসুন্ধরা আবাসিক প্রকল্প ফেজ-৪ এর কিউ-ব্লকের প্রায় দুই হাজার প্লটের মধ্যে সাতশ প্লট লটারির মাধ্যমে বাছাই করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২০
এসই/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa