bangla news

ছুটির দিনে তাঁতবস্ত্র ও হস্ত-কুটির শিল্পমেলায় উপচেপড়া ভিড়

কাওছার উল্লাহ আরিফ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২৪ ৭:৩৬:২০ পিএম
বগুড়ায় তাঁতবস্ত্র ও হস্ত-কুটির শিল্পমেলার প্রবেশপথ। ছবি: বাংলানিউজ

বগুড়ায় তাঁতবস্ত্র ও হস্ত-কুটির শিল্পমেলার প্রবেশপথ। ছবি: বাংলানিউজ

বগুড়া: বগুড়ায় ছুটির দিনে জমে ওঠেছে তাঁতবস্ত্র ও হস্ত-কুটির শিল্পমেলা। জেলা ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ও মণিপুরি তাঁতি শিল্প ও জামদানি বেনারশী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় মাসব্যাপী চলা মেলায় ছুটির দিনে দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় অনেকেই পুরো পরিবারকে নিয়ে ঘুরতে এসেছেন শেরপুর রোডে মোহাম্মদ আলী হাসপাতাল মাঠে আয়োজিত এ মেলায়।

কথা হয় মেলায় সপরিবারে ঘুরতে আসা প্রাথমিক শিক্ষক আমজাদ হোসেনের সঙ্গে। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজন বিনোদনের। বিনোদনের তাগিদেই পরিবারের সবাইকে নিয়ে মেলায় ঘুরতে এসেছেন তিনি।

সরেজমিনে দেখা যায়, মেলায় দর্শক ও দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়। শিশু-কিশোর-কিশোরী, তরুণ-তরুণী, যুবক-যুবতীসহ বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষের পদচারণায় বিকেল থেকেই মেলা প্রাঙ্গণ মুখরিত হয়ে ওঠে।

প্রবেশ পথের শুরুতেই তৈরি করা হয়েছে আকর্ষণীয় গেট। গেটের ওপর ও চারপাশ রাখা হয়েছে আলোকসজ্জার ব্যবস্থা। মেলায় প্রবেশপথ ও বের হওয়ার পথে বসানো হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

মেলায় ঘুরতে আসা আদনান আবিদ বাংলানিউজকে জানান, বিকেলে ছেলে-মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে তিনি মেলায় এসেছেন। মেলা থেকে ছেলে-মেয়েদের পছন্দের খেলনা ও কসমেটিকস সামগ্রীসহ বাসার জন্য প্রয়োজনীয় বেশ কিছু জিনিসপত্র কেনা হয়েছে।

নেহা সুলতানা, খাদিজা আক্তার, সোমাসহ একাধিক তরুণী বাংলানিউজকে জানান, বিগত সময়ের চেয়ে এ মেলা অনেক মানসম্পন্ন। এর সাজসজ্জ্বা ও পরিবেশ অনেক আকর্ষণীয়।

সময় পেলে তারা আবারও মেলায় আসার কথা জানান।

এর আগে, ২৫ ডিসেম্বর (বুধবার) মাসব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন করা হয়। 

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২০
কেইউএ/এবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বগুড়া
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-24 19:36:20