bangla news

রাজধানীতে শুরু হচ্ছে পোশাক শিল্পের চার প্রদর্শনী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১৩ ৩:৫১:২১ পিএম
প্রদর্শনীর বিষয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন/ছবি- ডি এইচ বাদল

প্রদর্শনীর বিষয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন/ছবি- ডি এইচ বাদল

ঢাকা: আগামী ১৫ জানুয়ারি (বুধবার) রাজধানীর আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পোশাক শিল্প পণ্যের চারটি আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী।

দেশের পোশাকখাতের উন্নয়নে মেশিনারি, ইয়ার্ন অ্যান্ড ফেব্রিক্স, গার্মেন্টস এক্সেসরিজ, প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং মেশিনারি ও সাপোর্ট সার্ভিস নিয়ে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হচ্ছে। আইসিসিবির ১০টি হলজুড়ে ২৪ দেশের ৪৫০ প্রতিষ্ঠান প্রদর্শনীতে অংশ নেবে। প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) রাজধানীর হোটেল লা ভিঞ্চিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, পোশাক শিল্পের মেশিনারি এবং এর সহায়ক পণ্যের ১৯তম আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর উদ্বোধন হবে আগামী ১৫ জানুয়ারি। প্রদর্শনীগুলো হলো- গার্মেন্টেক বাংলাদেশ-২০২০, ১১তম ইয়ার্ন অ্যান্ড ফেব্রিক্স সোর্সিং ফেয়ার-২০২০, ১১তম গ্যাপ এক্সপো-২০২০ এবং প্যাকটেক বাংলাদেশ-২০২০। প্রদর্শনীর পর্দা নামবে আগামী ১৮ জানুয়ারি (শনিবার)।

আয়োজক প্রতিষ্ঠান জাকারিয়া ট্রেড অ্যান্ড ফেয়ার ইন্টারন্যাশনালের প্রধান নির্বাহী টিপু সুলতান বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে ৫০ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানির লক্ষ্যে দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশের পোশাকখাত। এ অবস্থায় এ খাতকে উৎপাদন, নিরাপত্তা, কর্মপরিবেশ, দক্ষতা, পণ্যের মান, বৈচিত্র্যতা এবং মোড়কজাতকরণে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হচ্ছে। ১৯তম আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর গার্মেন্টেক বাংলাদেশ-২০২০ এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সহায়ক হবে বলে আশা করছি।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস এক্সেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোটার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএপিএমইএ) সভাপতি আব্দুল কাদের খান বলেন, আমাদের এ প্রদর্শনী সম্মিলিতভাবে আয়োজন করেছে জাকারিয়া ট্রেড অ্যান্ড ফেয়ার ইন্টারন্যাশনাল, আসক ট্রেড এক্সিবিশন প্রাইভেট লিমিটেড এবং বিজিএপিএমইএ। প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ড, কলম্বিয়া, মালয়েশিয়া, কানাডা, স্পেন, ফ্রান্সসহ ২৪টি দেশের ৪৫০ প্রতিষ্ঠান অংশ নেবে।

প্রদর্শনী প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২০ 
ইএআর/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-13 15:51:21