bangla news

জাপানি অর্থনৈতিক অঞ্চল বাস্তবায়নের দায়িত্ব পেয়েছে টোয়া

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-১২ ৭:০৯:৩৬ পিএম
বৈঠকে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, ছবি: বাংলানিউজ

বৈঠকে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জাপানি বিনিয়োগকারীদের জন্য এক হাজার একর জমিতে গড়ে উঠছে অর্থনৈতিক অঞ্চল। এক হাজার ৮১ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ব্যয়ে জাপানি অর্থনৈতিক অঞ্চলটির ভূমি উন্নয়ন কাজসহ অন্যান্য অবকাঠামোগত কাজ বাস্তবায়ন করবে জাপানি নির্মাণ কোম্পানি টোয়া করপোরেশন।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এমন একটি প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জাপানি অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প শীর্ষক প্রস্তাবটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আমরা সারাদেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলছি। এগুলো হয়ে গেলে যত্রতত্র শিল্প-কারখনা গড়ে উঠবে না। পরিকল্পনা বিহীনভাবে রাস্তাঘাট ও হাটবাজার তৈরি হচ্ছে, এগুলো বন্ধ হবে। কোন জায়গায় কী করলে ঠিক হবে, সে অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারব।

তিনি বলেন, জাপানি বিনিয়োগকারীদের জন্য নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে এক হাজার ১০ একর জমিতে একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল করছি। এর সব কাজ প্রায় শেষ। আমরা এখন ভূমি উন্নয়নে কাজ করব। ভূমি উন্নয়ন কাজসহ অন্য অবকাঠামোগত কাজ করবে জাপানের নির্মাণ কোম্পানি টোয়া করপোরেশন। এতে খরচ হবে এক হাজার ৮১ কোটি ৪৫ লাখ টাকা। আমরা শহরে আর কোনোভাবে চাপ বাড়াতে চাই না। আমরা চাই শিল্প-কারখানা গ্রামে-গঞ্জে হবে। সেখানকার লোক সেখানেই চাকরি করবে। তাদের চাকরির জন্য শহরে আসতে হবে না।

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে প্রায় এক হাজার ১০ একর জমিতে জাপানি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার সমঝোতা চুক্তিটি সই হয় ২০১৬ সালের ২ মে। তবে এই অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার আলোচনা শুরু হয় ২০১৩ সালে। নানা কারণে এই অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হয়। যদিও এখন আবার কাজ শুরু হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
জিসিজি/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   জাপান
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-12 19:09:36