ঢাকা, শনিবার, ৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০ সফর ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

পাতালরেল প্রকল্পে ২৮৬ কোটি টাকা দিচ্ছে এডিবি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৪৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
পাতালরেল প্রকল্পে ২৮৬ কোটি টাকা দিচ্ছে এডিবি

ঢাকা: ঢাকায় পাতাল রেল নির্মাণে প্রায় ২৮৬ কোটি টাকার (৩ দশমিক ৩২৬ কোটি মার্কিন ডলার, বাংলাদেশি মুদ্রায় ৮৬ টাকা ধরে) বেশি ঋণ দিচ্ছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। মেট্রোরেল-৫ প্রকল্পের টেকসই মূল্যায়ন প্রাথমিক প্রস্তুতিমূলক সম্ভাব্যতা যাচাই (প্রিপারেটরি ফিজিবিলিটি স্ট্যাডি) কাজে এ ঋণ দেওয়া হচ্ছে। 

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) রাজধানীর শেরে বাংলানগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে এ ঋণচুক্তি সই হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে চুক্তিকে সই করেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব মনোয়ার আহমেদ।

আর সংস্থাটির পক্ষে চুক্তিতে সই করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ।  

যানজটমুক্ত রাজধানী গড়তে উত্তরা তৃতীয় পর্যায় থেকে আগারগাঁও রুটে মেট্রোরেল নির্মাণের কাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে। এমআরটি লাইন-৬ প্রকল্পের আওতায় এ অংশটিতে ২০১৯ সালের মধ্যেই ট্রেন চলাচল উন্মুক্ত করতে চায় সরকার।

এমআরটি-৬ এর মতোই দ্বিতীয় ধাপের এমআরটি-৫ রুট মেট্রোরেল নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ)।  

আমিন বাজার থেকে নতুন বাজার পর্যন্ত এমঅারটি ৫ এর অাওতায় ১৩ দশমিক ৫ কিলোমিটার পাতালরেল নির্মিত হবে। এ কাজের জন্য সহজ শর্তে ঋণ দিচ্ছে সংস্থাটি।        

এই মেট্রোরেল হবে সাভারের হেমায়েতপুর থেকে আমিন বাজার, গাবতলী, মিরপুর-১, কচুক্ষেত, বনানী, গুলশান-২, নতুন বাজার হয়ে ভাটারা পর্যন্ত। এর দৈর্ঘ্য ২০ কিলোমিটার। এই রুটটি এমআরটি লাইন-৫ নামে পরিচিত হবে।

এই প্রকল্পে খরচ ৪১ হাজার ২৩৮ কোটি টাকা। শেষ হবে ২০২৮ সালের ডিসেম্বর মাসে। এ প্রকল্পে অর্থায়ন করবে জাপানের সাহায্য সংস্থা জাইকাও।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
এমআইএস/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa