bangla news

সিলেটে ৫ দিনে সোয়া ২৮ কোটি টাকার কর আদায়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১৮ ৮:২৭:৪৯ পিএম
করমেলা। ছবি: বাংলানিউজ

করমেলা। ছবি: বাংলানিউজ

সিলেট: সিলেটে সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলায় পাঁচ দিনে আদায় হয়েছে ২৮ কোটি ৩৪ লাখ ৬০ হাজার ৮৬৭ টাকা। এ ক’দিনে রিটার্ন দাখিল করেছেন ১১ হাজার ৬৬৯ জন, সেবা নিয়েছেন ২৩ হাজার ১৯০ জন ও নতুন ই-টিআইএন নিয়েছেন ৭৫৯ জন।

সোমবার (১৮ নভেম্বর) মেলার পঞ্চম দিনে সিলেট বিভাগের চার জেলাসহ সাতটি স্থানে মেলা থেকে ৭ কোটি ৫১ লাখ ৮১ হাজার ৫৭৬ টাকা কর আদায় করা হয়। এদিন রিটার্ন দাখিল করেছেন ৪ হাজার ৩৫৩ জন, সেবা নিয়েছেন ৬ হাজার ১০৭ জন ও নতুন ই-টিআইএন নিয়েছেন ২৮৭ জন।
 
কর অঞ্চল সিলেটের উপ-কর কমিশনার (সদর দপ্তর ও প্রশাসন) কাজল সিংহ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, সিলেটের চার জেলাসহ ৯টি স্থানে আয়কর মেলার আয়োজন করা হয়। এরমধ্যে ১৬ নভেম্বর সিলেটের বালাগঞ্জ ও ১৭ নভেম্বর গোলাপগঞ্জ উপজেলা পর্যায়ে দুই দিনের মেলা শেষ হয়েছে। 

সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ জেলা ও সুনামগঞ্জের ছাতক, মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল ও কুলাউড়া উপজেলার মেলা থেকে সর্বসাকুল্যে এ কর আদায় করা হয়। এর আগে রোববার (১৭ নভেম্বর) পর্যন্ত চার দিনে মেলায় আদায় ছিল ২০ কোটি ৮২ লাখ ৭৯ হাজার ২৯১ টাকা।
 
মেলা থেকে প্রাপ্ত তথ্যে মতে, সোমবার সিলেট নগরের মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়ামে মেলা থেকে ৭ কোটি ১৯ লাখ ৭ হাজার ৫১২ টাকা আয়কর আদায় করা হয়। এদিন রিটার্ন দাখিল করেন ২ হাজার ৫৯৮ জন, সেবা গ্রহণ করেছেন ৩ হাজার ৩৫২ জন ও ১২৯ জন নতুন ই-টিআইএন গ্রহণ করেছেন। গত পাঁচ দিনে এখান থেকে কর আদায়ের পরিমাণ ২৭ কোটি ৩১ লাখ ৭ হাজার ৩২৬ টাকা, রিটার্ন দেন ৭ হাজার ৫৭ জন, সেবা নিয়েছেন ১৪ হাজার ৮৩৮ জন ও ৩৯৫ জন নতুন ই-টিআইএন নিয়েছেন।
 
মৌলভীবাজার জেলায় (১৫-১৮ নভেম্বর) চার দিনের মেলার শেষ দিনে সোমবার ১২ লাখ ৫৫ হাজার ৪৩০ টাকা আদায় হয়। এদিন রিটার্ন দাখিল করেন ৩২১ জন, সেবা নেন ৪২০ জন ও ৬১ জন নতুন ই-টিআইএন গ্রহণ করেন। এ মেলা থেকে গত চার দিনে কর আদায়ের পরিমাণ ৫০ লাখ ২১ হাজার ১৪৫ টাকা, রিটার্ন দেন ১ হাজার ৯০৯ জন, সেবা নিয়েছেন ২ হাজার ৬৭৫ জন ও সর্বসাকুল্যে নতুন ই-টিআইএন নিয়েছেন ১২১ জন।
 
সুনামগঞ্জ জেলায় (১৬-১৯ নভেম্বর) চার দিনের মেলার তৃতীয় দিনে সোমবার ১৯ লাখ ১৬ হাজার ৭৪৮ টাকা কর আদায় হয়েছে। এদিন রিটার্ন দেন ৬৫৮ জন, সেবাগ্রহণ করেন ৯২২ জন ও ৪৭ জন নতুন করে ই-টিআইএন গ্রহণ করেন। তিন দিনে মেলা থেকে আদায়ের পরিমাণ ২২ লাখ ৬৬ হাজার ১৬৬ টাকা, রিটার্ন দাখিলকারী ৬৫৮ জন, সেবা গ্রহণকারী ২ হাজার ৭৮০ জন ও নতুন ই-টিআইএন গ্রহণকারী ৯২ জন।
 
হবিগঞ্জ জেলায় (১৭-২০ নভেম্বর) চার দিনের মেলার দ্বিতীয় দিনে সোমবার মেলা থেকে ১১ লাখ ৭২ হাজার ২৮৪ টাকা আদায় হয়েছে। এদিন রিটার্ন দাখিল করেছেন ৬৭৮ জন, সেবা নিয়েছেন ৭৭০ জন ও ৩৬ জন নতুন ই-টিআইএনধারী হয়েছেন। এখানে দুই দিনে মেলা থেকে আদায় হয়েছে ১৭ লাখ ১১ হাজার ৪৮ টাকা, রিটার্ন দিয়েছেন ১ হাজার ৩৬ জন, সেবা নিয়েছেন ১ হাজার ৩৯৫ জন ও ৭৬ জন নতুন করে ই-টিআইএন খুলেছেন।
 
ছাতক উপজেলায় (১৭-১৮ নভেম্বর) দুই দিনে ৪৪ হাজার ৫৮২ টাকা আদায় হয়। রিটার্ন দেন ৪৫ জন, সেবা নেন ১৫০ জন ও নতুন করে একজন ই-টিআইএন নেন। কেবল সোমবার মেলা থেকে আদায় ৩০ হাজার ৯৯৩ টাকা, রিটার্ন দেন ৫০ জন, সেবা নেন ৮০ জন। এদিন নতুন করে কেউ ই-টিআইএন গ্রহণ করেননি।   
 
শ্রীমঙ্গল উপজেলায় (১৭-১৮ নভেম্বর) দুই দিনের মেলা থেকে আদায় হয়েছে ৫ লাখ ৪১ হাজার ৩ টাকা। রিটার্ন দেন ৪৭৬ জন, সেবা নেন ৩৬২ জন ও ২৪ জন নতুন ই-টিআইএন নিয়েছেন। এ উপজেলায় শেষ দিনে (সোমবার) আদায় ২ লাখ ৫৭ হাজার ৩৬৭ টাকা, রিটার্ন দেন ২৬৮ জন, সেবা নেন ২০৫ জন ও নতুন ই-টিআইএন নিয়েছেন ৮ জন।
 
কুলাউড়া উপজেলায় (১৮-১৯ নভেম্বর) দুই দিনব্যাপী মেলার প্রথম দিনে (সোমবার) ২১৮ জন রিটার্ন দিয়েছেন, বিপরীতে ৩ লাখ ৫১ হাজার ২৪২ টাকা কর আদায় হয়েছে। আর সেবা নিয়েছেন ৩৫৮ জন, নতুন ই-টিআইএন খুলেছেন ৫ জন।
 
এর আগে সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলায় (১৫ ও ১৬ নভেম্বর) দুই দিনের মেলা থেকে আদায় ছিল ১ লাখ ৩২ হাজার ৬৩৫ টাকা। গোলাপগঞ্জ উপজেলায় (১৬-১৭ নভেম্বর) মেলা থেকে ২ লাখ ৮৫ হাজার ৭২০ টাকা কর আদায় হয়।
 
‘আমরা স্বাবলম্বী হবো, সবাই কর দেবা’ এ স্লোগানে সাত দিনব্যাপী আয়কর মেলা বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) উদ্বোধন হয়। আগামী ২০ নভেম্বর পর্যন্ত মেলা চলবে।
 
বাংলাদেশ সময়: ২০২৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৮, ২০১৯ 
এনইউ/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সিলেট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-18 20:27:49