bangla news

কক্সবাজারে সাড়া ফেলেছে নারী উদ্যোক্তাদের মেলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৫ ১০:৩৬:২১ পিএম
মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজ

মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজ

কক্সবাজার: অনলাইনে ‘বন্ধুতা’ নামে পেজে প্রচারণা চালিয়ে পণ্য বাজারজাত করে আসছিলেন কক্সবাজারের নারী উদ্যোক্তা ফাতেমা ইসলাম লাকী। একইভাবে অনলাইন পেজ ‘মুনার হ্যাচেল’ থেকে অর্ডার নিয়ে ঘরে তৈরি গ্রামবাংলার বিভিন্ন রকম পিঠাসহ খাবার সরবরাহ করেন রেহেনা আকতার। দু’জনই নতুন উদ্যোক্তা। 

এ রকম নবীন সাত নারী উদ্যোক্তার অংশগ্রহণে কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত হয়েছে ই-কমার্স কুটির ও হস্তশিল্প মেলা। 

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবনী পয়েন্টে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) পরিচালিত ঊর্মি রেস্টুরেন্টের আঙিনায় পাঁচ দিনের এ মেলার আয়োজন করে ‘ডিভা অর্গানাইজেশন’। 

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) থেকে শুরু হওয়া মেলা চলে সোমবার (১৪ অক্টোবর) রাত ১০টা পর্যন্ত।

‘বন্ধুতা’র স্বত্বাধিকারী নারী উদ্যোক্তা ফাতেমা ইসলাম লাকী বাংলানিউজকে জানান, মূলত নারীদের ব্যবহার্য পণ্য ও দ্রব্যাদি নিয়ে এসেছিলেন তিনি। তবে স্থান নির্ধারণ সঠিক না হওয়ায় এবং প্রচার-প্রচারণা না থাকার কারণে আশানুরূপ বিক্রি হয়নি তার। মেলায় অংশ নেওয়ার ফলে তার পেজে অনেকে পণ্য অর্ডার দেবে বলে আশাবাদী লাকি।   

মেলায় গ্রাম বাংলার পিঠা-পুলি নিয়ে এসেছিলেন রেহেনা আকতার। ভিন্ন স্বাদের পিঠা খেতে ‘মুনার হ্যাচেল’ দোকানটিতে বেশ ভিড় হয়েছিল বলে জানান এ উদ্যোক্তা। কক্সবাজারে বেড়াতে আসা পর্যটকরাই তার দোকানে বেশি এসেছেন।

সোমবার শেষ দিনের মেলায় আসা দর্শনার্থী তানভীর সুলতানা সান্তনা জানান, মেলার সব স্টলেই নারীদের পণ্য ছিল। দেখে ভালো লেগেছে তার। 

ঢাকা থেকে বেড়াতে যাওয়া মুনতাহা সাবরিনা জানান, প্রচারণা না থাকায় মেলার খবর তিনি শেষ মুহূর্তে পেয়েছেন। একটু প্রচারণা থাকলে আরও বেশি মানুষ আসতে পারতো।

মেলার উদ্যোক্তা ‘ডিভা অর্গানাইজেশন’-এর নওশাবা মোকতার সিয়াম বাংলানিউজকে বলেন, মফস্বলের নারীদের নিয়ে সবসময় নতুন কিছু করার ভাবনা থেকেই তিনি মেলাটির আয়োজন করেছেন। এ থেকে নতুন নারী উদ্যোক্তা তৈরি হবে। 

নওশাবা জানান, নারীদের বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থাও করে থাকে তার প্রতিষ্ঠান। ভবিষ্যতে প্রচারণা বাড়িয়ে আরও বড় পরিসরে মেলার আয়োজন করা হবে।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বাংলানিউজকে জানান, উদ্বোধনীর দিন এ মেলা পরিদর্শন করেছেন তিনি। বলেন, অনলাইনে প্রচারণা চালিয়ে ঘরে বসেই নারীরা আয়ের উৎস খুঁজে নেওয়ায় সন্তুষ্ট তিনি। 

সবশেষে কামাল হোসেন বলেন, এভাবেই অনগ্রসর এলাকাতেও নারীরা এগিয়ে যেতে পারবে। 

বাংলাদেশ সময়: ২২৩৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৫, ২০১৯
এসবি/কেএসডি/আরবি/ 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   কক্সবাজার
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-15 22:36:21