ঢাকা, সোমবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৭, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২ সফর ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ‘ডিমানি’র যাত্রা শুরু

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৯
মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ‘ডিমানি’র যাত্রা শুরু মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ‘ডিমানি’র যাত্রা শুরু

ঢাকা: ডিজিটাল পেমেন্টের প্রয়োজনেই নয়, আধুনিক লাইফস্টাইল ও আর্থিক বিভিন্ন সেবাদানের প্রতিশ্রুতি দিয়ে যাত্রা শুরু করলো নতুন ডিজিটাল পেমেন্টের মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ডিমানি। একই সঙ্গে চালু করা হলো অ্যাপসও।

সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বাণিজ্যিকভাবে ওই কার্যক্রমের উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এখন থেকেই স্মার্টফোনে ডিমানি অ্যাপ ডাউনলোড করে অ্যাকাউন্ট খোলার সঙ্গে নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট যুক্ত করতে পারবেন।

ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড থেকে ডিমানি অ্যাকাউন্টে তহবিল স্থানান্তর করা যাবে।

লাইফস্টাইল সেবার বিল, টপ-আপ, বিল পরিশোধ, টিকেটিং, ফুড, বিমা ও স্বাস্থ্যসহ ব্যবহারকারীদের প্রতিদিনের প্রয়োজন মেটাতে অন-ডিমান্ড এবং ডে-টু-ডে সেবা পাওয়া যাবে।

ডিমানি ব্যবহারকারীরা কিউআর কোড এবং অনলাইন গেটওয়ের মাধ্যমে বিভিন্ন টাচ পয়েন্টে বিল পরিশোধ পরিশোধ করতে পারবেন। ডিমানির রিটেইল কিউআর কোড ইএমভিসিও সমর্থনযোগ্য এবং শীর্ষস্থানীয় পেমেন্ট নেটওয়ার্ক ভিসা ও ইউনিয়ন পে’র সঙ্গে যুক্ত।   বর্তমানে আড়াই হাজারের বেশি অফলাইন এবং অনলাইন স্টোরে ডিমানির পেমেন্ট সুবিধা রয়েছে। ডিমানির কিউআর অ্যালায়েন্সের অংশ হতে যাচ্ছেন দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যাংক ওয়ান ব্যাংক, ট্রাস্ট ব্যাংক এবং আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের গ্রাহকরা।

অনুষ্ঠানে ডিমানির চেয়ারম্যান অঞ্জন চৌধুরী বলেন, আমার স্বপ্ন জাতিকে ডিজিটাল পেমেন্ট সেবা দেওয়া, শুধু ব্যবসা করা নয়। স্কয়ার গ্রুপের সব পণ্যের মতো ডিমানিও মানবকল্যাণে কাজ করবে।

ডিমানির ভাইস চেয়ারম্যান সোনিয়া বশির কবির বলেন, ডিমানির মাধ্যমে আমরা দেশের সবার হাতে প্রযুক্তি পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করলাম। ডিমানি দেশের মানুষের পাশাপাশি বিদেশেও ব্যবহারকারীদের কাছে নিয়ে যাবো। ডিমানি নিয়ে আসতে পেরে আনন্দিত। ডিমানি ডিজিটাল অ্যাডাপশনকে সহজ করবে এবং মানুষের জীববে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে। আমরা আশাবাদী, সুবিধাবঞ্চিতদের সামাজিক ক্ষমতায়নে ডিমানি অন্যতম প্রভাবক হিসেবে কাজ করবে।

বিস্তারিত তুলে ধরে লিখিত বক্তব্যে ডিমানির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরেফ বশির বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সব বিধি নির্দেশ মেনে আজ আমাদের যাত্রা শুরু হলো। ডিমানি সব ডিজিটাল পেমেন্টের প্ল্যাটফর্ম ও লাইফস্টাইল অ্যাপ। এ প্ল্যাটফর্ম ইকোসিস্টেম নির্মাণে কাজ করবে কেননা ডিমানি বিশ্বাস করে, প্রযুক্তি ও অংশীদারিত্বের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের নিয়ে একসঙ্গে কাজ করার মাধ্যমে ‘ক্যাশ ইকোনোমি’ থেকে ‘ডিজিটাল ইকোনোমি’তে রূপান্তরের বাধা দূর করা সম্ভব।

আরেফ বশির অ্যাপের ফিচারগুলো দেখান এবং ডিমানির নিয়ে আসার ক্ষেত্রে এর পেছনের ভাবনাকে সবার সামনে তুলে ধরেন। তিনি ওয়ালেট ট্রান্সফার দেখান, যার বিভিন্ন উদ্ভাবনী ফিচারের মধ্যে রয়েছে ‘ট্রানস্যাকশন ইউসেজ ড্যাশবোর্ড এবং পিটুপি ও পিটুবি’র ক্ষেত্রে ‘রিকোয়েস্ট মানি উইথ ইনভয়েস’ অপশন। সবার সামনে তিনি বাংলাদেশ ব্যাংকের নীতিমালা অনুসরণ করা দেশের প্রথম ইন্টারোপেরেবল কিউআর দেখান যেখানে ইন্টারন্যাশনাল কার্ড স্কিম এবং বিভিন্ন পার্টনার ব্যাংক রয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সেবা বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. মেজবাউল হক বলেন, সেবা প্রদানে গ্রাহকের আস্থা অর্জন করা এবং ধরে রাখা বড় চ্যালেঞ্জ। একবার গ্রাহকের আস্থা হারিয়ে গেলে সেটা ফিরিয়ে আসার অনেক কঠিন। আমি আশা করছি, ডিমানি দেশের তৃণমূলে আর্থিক অর্ন্তভুক্তিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। প্রথাগত ব্যাংকিং সেবা ব্যবসার পেছনে দৌড়ালেও মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো আর্থিক অর্ন্তভুক্তিতে কাজ করবে বলে আমি বিশ্বাস করি। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে ডিমানির জন্য শুভ কামনা।

অ্যাপ স্টোর এবং গুগল প্লে স্টোর দু’জায়গা থেকেই ডিমানি ডাউনলোড করা যাবে। অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড ৪.০ এবং আইওএস ৬ এবং এর ওপরের সংস্করণের ডিভাইসে চলবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গণমাধ্যমকর্মী এবং ডিমানির মিডিয়া ও ব্যবসায়িক অংশীদাররা।

এ বছরের জানুয়ারিতে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার (পিএসপি) অনুমোদন পায় ডিএমবিএল। ডিমানির পরিকল্পনা রয়েছে ২০২০ সালের মধ্যে এর কিউআর পেমেন্ট এক লাখে নিয়ে যাওয়ার।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৯
এসই/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa