ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ অক্টোবর ২০১৯
bangla news

পরিমিত সার প্রয়োগে প্রতিবছর জুমচাষ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-২১ ৪:৩০:৫৫ পিএম
খাগড়াছড়ি জেলা সদরে পালন করা হয় মাঠ দিবস। ছবি: বাংলানিউজ

খাগড়াছড়ি জেলা সদরে পালন করা হয় মাঠ দিবস। ছবি: বাংলানিউজ

খাগড়াছড়ি: পাহাড়ি জমিতে প্রতি বছর চাষাবাদের প্রযুক্তি উদ্ভাবনের জন্য কাজ করছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশন (কেজিএফ)। পরিমিত পরিমাণে সার প্রয়োগের মাধ্যমে প্রতিবছর জুমচাষ করতে জুমিয়াদের উৎসাহিত করছে প্রতিষ্ঠানটি।

শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের আটমাইল এবং দীঘিনালা উপজেলার নয়মাইল এলাকায় মাঠ দিবস পালন করা হয়।

কৃষকের মাঠে আয়োজিত মাঠ দিবসের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. অলোক কুমার পাল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সাইফুল আলম, খাগড়াছড়ি কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক মর্ত্তুজ আলী।

তারা পাহাড়ি জমি খালি না রেখে শুধুমাত্র সার প্রয়োগের মাধ্যমে একই জমিতে প্রতিবছর জুম ফসল উৎপাদন করার পরামর্শ দিয়েছেন।

কৃষি গবেষনা ফাউন্ডেশন (কেজিএফ) ২০১৩ সাল থেকে তিন পার্বত্য জেলায় জুমিয়াদের কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করে আসছে। প্রচলিতভাবে পাহাড়ের একই জমিতে প্রতিবছর জুমচাষ হয় না। পাহাড়িরা ২ থেকে ৪ বছর বিরতি দিয়ে জুমচাষ করে থাকেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯
এডি/এইচএডি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   খাগড়াছড়ি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-21 16:30:55