bangla news

মেহেরপুরে বাড়ছে লাউ চাষ

জুলফিকার আলী কানন, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-২৫ ৯:১৯:৩৮ এএম
লাভ ভালো হওয়ায় দিন দিন বাড়ছে লাউয়ের চাষ। ছবি: বাংলানিউজ

লাভ ভালো হওয়ায় দিন দিন বাড়ছে লাউয়ের চাষ। ছবি: বাংলানিউজ

মেহেরপুর: মেহেরপুরে গ্রীষ্মকালীন লাউয়ের চাষ দিন দিন বাড়ছে। সবজি হিসেবে লাউয়ের চাহিদা থাকায় বাজারে দামও ভাল। অল্প খরচে বেশি লাভের আশায় মেহেরপুরের চাষিরা ঝুঁকছেন লাউ চাষে।

দেশে সবজির চাহিদা সারা বছর থাকে। সেই চাহিদা মেটাতে মেহেরপুরে সারা বছর বিভিন্ন ধরনের সবজি উৎপাদিত হয়। এর মধ্যে গ্রীষ্মকালীন লাউয়ের চাষ অন্যতম। এই চাষে লাভবান হওয়ায় দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে লাউ চাষ।

মেহেরপুর জেলা কৃষি বিভাগের তথ্য মতে, জেলায় এবার লাউয়ের চাষ হয়েছে ১২০ হেক্টর জমিতে, যা গতবারের তুলনায় ৩০ হেক্টর বেশি। বিঘাপ্রতি লাউ চাষ করতে কৃষকের খরচ হয়েছে ১০/১২ হাজার টাকা। বাজার দর ও চাহিদা ভালো থাকায় এক বিঘা জমিতে উৎপাদিত লাউ বিক্রি করে কৃষক ঘরে তুলছেন ৫০-৬০ হাজার টাকা।
ছবি: বাংলানিউজ
মেহেরপুর সদর উপজেলার ঝাওবাড়িয়া গ্রামের লাউ চাষি আব্দুল হান্নান ও গোলাম রসুল বাংলানিউজকে জানান, লাউ চাষ করে লোকসান গুণতে হয় না। প্রতি বিঘা জমিতে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা খরচ হয়। সেখানে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা লাভ হয় এ সবজি বিক্রি করে। তাছাড়া বাজারে সব সময় লাউয়ের চাহিদাও থাকে।

গাংনীর সাহারবাটি গ্রামের ব্যবসায়ী ইমারত আলী বাংলানিউজকে জানান, আমি এখান থেকে লাউ কিনে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনাসহ বিভিন্ন স্থানে পাঠায়। রাজধানীসহ বিভিন্ন জেলার মার্কেটে লাউয়ের চাহিদা সব সময় থাকে।
লাউ সংগ্রহে ব্যস্ত কৃষক। ছবি: বাংলানিউজ
মেহেরপুর কৃষি সম্প্রাসারণ অদিদপ্তরের উপ-পরিচালক (ডিডি) কৃষিবিদ ড. আক্তারুজ্জামান বাংলানিউজকে জানান, অর্থকরী ফসল হিসেবে লাউ আবাদে কৃষক লাভবান হওয়ায় সবজির জেলা মেহেরপুরের চাষিরা লাউ চাষ করে থাকেন। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা এবং সব স্তরের কৃষি কর্মকর্তারা চাষিদের প্রযুক্তিগত সহায়তা ও পরামর্শ দিচ্ছেন। তবে উৎপাদিত সবজি-ফসলের সংরক্ষণের জন্য একটি সবজি হিমাগার স্থাপন করবে এ প্রত্যাশা এলাকার কৃষকদের।

বাংলাদেশ সময়: ০৯১৫, জুলাই ২৫, ২০১৯
এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   মেহেরপুর কৃষি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-25 09:19:38